• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৩রা জুলাই, ২০২০ ইং | ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

সন্ধ্যা ৬:৪৭


প্রয়োজনীয় সংশোধনী এনে বাজেট পাশ করা উচিত হবে

মো: সাহেদ : গত বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে উপস্থাপিত হয়েছে ২০১৯-২০সালের বাজেট। এটি দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেট। এই বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। এ বাজেটের শিরোনাম ছিল‘সমৃদ্ধ আগামীর’ প্রত্যাশায় এবারের বাজেট।

এতে রাজস্ব খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে তিন লাখ ১০ হাজার ২৬২ কোটি টাকা এবং উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ দুই লাখ দুই হাজার ৭২১ কোটি টাকা। প্রতিবারের মতো এবারো বাজেট নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে নানামুখী আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে। কেউ বলছেন উচ্চাভিলাষী বাজেট, আবার কেউ বলছেন বাজেটের আকার আরো অনেক বড় হওয়া দরকার ছিল। এ বারের বাজেটে ঘাটতি দাড়িয়েছে এক লাখ ৪৫ হাজার ৩৮০ কোটি টাকা। ঘাটতি মেটাতে ব্যাংক ও সঞ্চয়পত্র মিলিয়ে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ঋণ নেওয়া হবে ৭৭ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা এবং বিদেশি ঋণ ধরা হয়েছে ৬৩ হাজার ৮৪৮ কোটি টাকা। রাজস্ব আয়ের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, এনবিআর তা আদায় করতে পারবে না বলে মেনে হচ্ছে।আর যদি সেটিই হয় তা হলে ঘাটতি আরো বেশি হবে।

তবে এবার বাজেটে রাজস্ব আয়ের ঘাটতি মেটাতে এবার কর আদায়ের আওতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। প্রতি উপজেলায় কর অফিস তৈরী করা হবে। কর প্রদানকারীর সংখ্যা বাড়ানো । ব্যবসায়ীদের দাবি অনুযায়ী এবার ভ্যাটের হার ও ভ্যাট প্রদানকারীদের বেশ কয়েকটি স্তরে ভাগ করা হয়েছে। সর্বোচ্চ ভ্যাট হার ১৫ শতাংশ থাকলেও কিছু কিছু পণ্যে তা ২ শতাংশে নামিয়ে আনা হয়েছে। সত্ত্বেও তারা ঘোষিত বাজেটকে জনকল্যাণমুখী বাজেট হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। বাজেটে এবারও করমুক্ত বার্ষিক আয়সীমা দুই লাখ ৫০ হাজার টাকাই রাখা হয়েছে। অনেকেই এর তীব্র সমালোচনা করেছেন। ২০১৫-১৬ অর্থবছর থেকে করমুক্ত আয়সীমা একই আছে। অথচ মূল্যস্ফীতির কারণে এ কয় বছরে মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয় অনেক বেড়ে গেছে এবং প্রকৃত আয় কমে গেছে। তাঁদের মতে, করমুক্ত আয়সীমা এখন কমপক্ষে চার লাখ টাকা করা প্রয়োজন। অনেকেই এবারের বাজেটকে ‘শিল্পবান্ধব’উল্লেখ করে বলেছেন, এতে শিল্পায়ন উৎসাহিত হবে এবং কর্মসংস্থানের হার বাড়বে। পুঁজিবাজারে স্থিতি আনার লক্ষ্যে প্রণোদনাসহ বেশ কিছু উদ্যোগের কথা বলা হয়েছে।

প্রয়োজনীয় সংশোধনের পর আগামী অর্থবছরের বাজেট পাস করা উচিত বলে আমরা মনে করি।