ঢাকা শুক্রবার, ২৩শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৮ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

দুপুর ১২:৪৫
সারা বাংলা

স্ত্রীসন্তান ফেলে অন্য নারীকে নিয়ে হাফেজ স্বামী উধাও

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে কোরানের হাফেজ নাজমুল হক নিজের স্ত্রী ও অবুঝ দুই শিশু সন্তানকে ফেলে অন্য এক নারীকে নিয়ে বাড়ি থেকে উধাও হয়েছেন। তিনি উপজেলার বরইতলা গ্রামের মৃত মমতাজ আলীর পুত্র এবং আলমপুর মাদ্রাসার হাফেজ শিক্ষক।

এই ঘটনায় ৩১ মে সকালের কাজিপুর প্রেসক্লাবে এসে নির্যাতিতা গৃহবধু সাবিনা খাতুন তার অবুঝ দুই শিশুপুত্র, অন্ধ বাবা আব্দুল বারী ও মা মিমি খাতুনকে নিয়ে হাজির হয়ে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান।

সাবিনা খাতুন জানান, ২০১১ সালে তারই খালাতো ভাই আলমপুর মাদ্রসার শিক্ষক হাফেজ নাজমুলের সাথে বিয়ে হয়। বিয়েতে যৌতুক হিসেবে নগদ টাকা এবং গহনা দেন তার পিতা। ইতোমধ্যে তাদের ঘরে দুটি ছেলে শিশু সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের কিছুদিন পরেই পাল্টে যান নাজমুল। এক পর্যায়ে আরও যৌতুকের জন্যে সাবিনাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন মারধোর করে। সাবিনা জানান. নির্যাতন সয়ে শিশু বাচ্চাদের কথা চিন্তা করে স্বামীর বাড়িতেই রয়ে যাই। তিন মাস পূর্বে নাজমুল গোপনে আরেকটি বিয়ে করে বাড়ি থেকে লাপাত্তা হয়ে যান। এদিকে নাজমুলের কথামতো সাবিনাকে প্রতিদিন মারধোর ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এক পর্যায়ে নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাবার বাড়ি এসে গত ৩০ এপ্রিল সিরাজগঞ্জ আদালতে নারী শিশু নির্যাতন দমন কোর্টে স্বামী, শাশুড়ি, ননদ ও দেবরকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এখনো আসামী আটক হয়নি।

অবুঝ দুটি শিশু সন্তান নিয়ে দরিদ্র বাবার বাড়িতে অবস্থান করা সাবিনা খাতুন ন্যায় বিচারের আশায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।