• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৮ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ১:১৭

সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে সরকারের যুগোপযোগী উদ্যোগ


প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে স্বাস্থ্য বিমার আওতায় আনার উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বাজেটে এ প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রস্তাবিত বাজেটে নারীর ক্ষমতায়ন বৃদ্ধিতে দরিদ্র নারীদের জন্য ক্ষুদ্র বিমা, কৃষকদের রক্ষায় শস্য বিমা, গবাদিপশু বিমা, সরকারি কর্মচারীদের স্বাস্থ্য বিমা চালুর প্রস্তাব করা হয়েছে। এ ছাড়াও সরকারি কর্মচারীদের গ্রুপ বিমার আওতায় আনতে বিমা খাতের বিদ্যমান ব্যবস্থা সংস্কার করে জীবন বিমা করপোরেশনের সহযোগিতায় একটি সমন্বিত বিমা ব্যবস্থা চালু করা হবে।

দুর্ঘটনা ও অন্যান্য কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী শ্রমিক এবং তাদের পরিবারের আর্থিক ক্ষতি লাঘবে বিমা সুবিধা নেই উল্লেখ করে প্রবাসী শ্রমিকদের জন্য খুব শিগগিরই বিমা প্রকল্প চালুর কথা বলা হয়েছে বাজেট প্রস্তাবে।

বিমা খাতের ব্যাপক উন্নয়নের উদ্যোগ হিসেবে ডিজিটাইজেশন ও পেনিট্রেশন বৃদ্ধির পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ ছাড়াও কারখানা শ্রমিকদের দুর্ঘটনাজনিত বিমা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হবে।

বৃহৎ প্রকল্পের মাধ্যমে সৃষ্ট সম্পদের বিমা দেশীয় বিমা কোম্পানির মাধ্যমে সম্পাদনের ব্যবস্থা করা ছাড়াও ‘লস অব প্রফিট’ এর জন্য বিমা চালুর উদ্যোগ নেয়ার কথা বলা হয়েছে।

রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্পের ক্ষেত্রে বিমা কোম্পানির সেবার ওপর মূল্য সংযোজন কর (মূসক) অব্যাহতির প্রস্তাব করা হয়েছে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে। বাজেট প্রস্তাবে বলা হয়, ‘‘আমাদের দেশে জীবন বিমা অনেক দুর্বল, এটাকে জনপ্রিয় করা গেলে অর্থনীতিতে বিশাল ভূমিকা রাখতে পারে।’’