• ঢাকা
  • শনিবার, ৬ই জুন, ২০২০ ইং | ২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১২ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

রাত ১২:০৮

সর্বহারা পার্টির পরিচয়ে গনহারে চাঁদা দাবী


ঝিনাইদহ সংবাদদাতা : কথিত সর্বহারা পার্টির নাম ব্যবহার করে ঝিনাইদহ প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারীদের কাছে গনহারে চাঁদাদাবী করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে জনৈক বিপ্লব পরিচয় দিয়ে ০১৮৬২-৮১৭৪৯৩ নাম্বার থেকে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করা হয়। চাঁদা না দিলে কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্ত্রী ও সন্তানদের অপহরণ করে হত্যা করা হবে বলেও হুমকী দেয়া হয়।

ঝিনাইদহে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শেখ আখতারুজ্জামান বলেন, অনেকের কাছে চাঁদা দাবী করে মোবাইল করা হচ্ছে বলে তিনি শুনেছেন। তিনি তাদেরকে আইনী প্রক্রিয়ার আশ্রয় নিতে বলেছেন।

জানা গেছে, ঝিনাইদহ শিক্ষা অফিসের এডিপিও লক্ষন কুমার, সাবেক অফিস সহকারী আইনাল হক ও অফিস সহকারী দেবুসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা কর্মচারীর কাছে চাঁদা দাবী করা হয়েছে। সাবেক অফিস সহকারী আইনাল হক জানান তার কাছে চরমপন্থি সংগঠন সর্বহারা পার্টির বিপ্লব পরিচয় দিয়ে চাঁদা চাওয়া হয়েছে। টাকা না দিলে সন্তানদের হত্যার হুমকীও দেওয়া হচ্ছে। শিক্ষা বিভাগ ছাড়াও অনেক সরকারী অফিসে চাঁদা চেয়ে ফোন করা হচ্ছে। এর আগে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক দপ্তরের নাজির ও অফিস সহকারীদের ফোন করে যুগ্ম সচিব পরিচয় দিয়ে চাঁদা চাওয়া হয়।

ঝিনাইদহ সাব রেজিষ্টার মৃত্যুঞ্জয়ী শিকারীসহ জেলার সব উপজেলার হিসাব রক্ষন অফিসে চাঁদা চাওয়া হয়েছিল। তারা থানায় জিডি করলেও অপরাধীদের সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। তবে পুলিশের একটি সুত্র জানায় দক্ষিনাঞ্চলের কোথাও চরমপন্থি দলের অস্তিত্ব নেই। কোন গ্যাং গ্রুপ ঈদ সামনে করে আতংক সৃষ্টি ও আর্থিক সুবিধা নেওয়ার জন্য এহেন অপকর্ম করতে পারে।

বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান বলেন, এ বিষয়ে তাদের কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।