• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৭ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

রাত ২:০৯

সংসদে যাওয়া নিয়ে বিএনপিতে বন্ধ হয়নি আলোচনা


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই বিএনপি বলে আসছে তাদের নির্বাচিত প্রার্থীরা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেবেন না। তবে বেশ কয়েকটি বিষয় মাথায় রেখে বিএনপি শপথ নিতে পারে বলে গুঞ্জনও ছিল। তবে বরাবরই এসব গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন বিএনপির নেতারা।

অবশ্য ৩০ ডিসেম্বরের ভোটে নির্বাচিত কয়েকজন সাংসদ এবং বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতারা প্রথম আলোকে বলছেন, রাজনীতিতে শেষ কথা বলে তো কিছু নেই। সময়ের সঙ্গে অনেক সিদ্ধান্তের পরিবর্তন হয়। দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাব না বা দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি না হলে নির্বাচনে যাব না—বিএনপি তো এমন অবস্থান থেকে সরে এসেছিল। ফলে এখনো এক মাসের বেশি সময় হাতে আছে, দেখা যাক কী হয়?

ওই নেতারা বলছেন, এই মুহূর্তে বিএনপির চেয়ারপারসন কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে জামিনে মুক্তি দেওয়ার শর্তে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা হতে পারে। তাই সংসদে যাওয়ার বিষয়টি এখনো দলের মধ্যে হিসাব-নিকাশ পর্যায়ে আছে। যদিও তাঁরা বলছেন, সংসদে যাওয়া নিয়ে দলে আলোচনা বন্ধ হয়ে যায়নি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি ছয়টি আসনে জিতেছিল। তারা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে নির্বাচনে অংশ নেয়। ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম দল গণফোরাম পায় দুটি আসন। এর মধ্যে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে নির্বাচিত সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ৭ মার্চ দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেন। সিলেট-২ আসন থেকে গণফোরামের আরেক নির্বাচিত সদস্য মোকাব্বির খানও শপথ নিতে আগ্রহী। ৭ মার্চ তাঁর শপথ নেওয়ার কথা থাকলেও সেদিন তিনি নেননি।