• ঢাকা
  • সোমবার, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং | ২২শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

সকাল ৭:৫৯

শারাপোভার বিদায়


স্পোর্টস ডেস্কঃ ফর্মে ফেরা, কাঁধের চোট, ডোপ কেলেঙ্কারি সব কিছু ঝাপিয়ে অন্য কারণে মারিয়া শারাপোভা এবার আন্তর্জাতিক খবরের শিরোনামে। টেনিসকে একেবারেই ‘গুডবাই’ জানিয়ে দিলেন পাঁচটি গ্র্যান্ড স্লামজয়ী রুশ সুন্দরী।

৩২ বছর বয়সী শারাপোভা টেনিস থেকে অবসরের কথা জানিয়েছেন ভোগ এবং ভ্যানিটি ফেয়ার সাময়িকীতে লেখা এক প্রতিবেদনে জানান, ‘টেনিস, আমি তোমাকে বিদায় জানালাম। টেনিস র‌্যাকেট হাতে ২৮ বছর পার করলাম। পাঁচটি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের পর আমি এখন অন্য শৃঙ্গ জয় করতে তৈরি।’

সাইবেরিয়ায় জন্ম নেয়া এই টেনিস তারকা মাত্র ১৭ বছর বয়সই তাক লাগিয়ে দেন। ২০০৪ সালে, উইম্বলডন ফাইনালে সেরিনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে শারাপোভা বুঝিয়ে দিলেন কোন অংশে কম নন তিনি। উইম্বলডনের ইতিহাসে শারাপোভা ছিলেন তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ চ্যাম্পিয়ন। এর ঠিক এক বছর পরে, ১৮ বছর বয়সে বিশ্বের এক নম্বর মহিলা টেনিস খেলোয়াড়ের মুকুট ওঠে শারাপোভার মাথায়। এখন পর্যন্ত মাত্র দশজনের মধ্যে প্রথম কোন রুশ নারী টেনিস বিশ্বে এক নম্বর হওয়ার সম্মান অর্জন করেন। টানা ১১ বছর ধরে রেখেছেন ফোর্বসের সর্বোচ্চ উপার্জনকারী নারী খেলোয়াড়েরর অবস্থান। 

শারাপোভা একটি করে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন (২০০৮), উইম্বলডন (২০০৪) ও ইউএস ওপেন (২০০৬) ছাড়াও জিতেছেন দুটি ফ্রেঞ্চ ওপেন (২০১২ ও ২০১৪)। সাবেক এক নম্বর ক্যারিয়ারে জিতেছেন ৩৬টি ডব্লুটিএ শিরোপা। এসেছে অলিম্পিক্স পদকও । 

২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ডোপ টেস্টে ব্যর্থ হয়ে ১৫ মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়েছেন। সেই নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে টেনিসে ফিরেই শুরু তো তাঁর চোট আর ফর্ম ফিরে পাওয়ার লড়াই শুরু। বিদায় নেওয়ার আগে তাঁর র‌্যাঙ্কিং নেমে গিয়েছিল ৩৭৩ অবস্থানে।

আপাতত নিজেকে সময় দিতে চান শারাপোভা। পরিবার আর নাচের ক্লাস হবে তার একমাত্র সঙ্গী। 

সূত্র: বিবিসি ও উইকিপিডিয়া।