ঢাকা শনিবার, ২৫শে মে, ২০১৯ ইং | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৯শে রমযান, ১৪৪০ হিজরী

বিকাল ৫:৩০
সারা বাংলা

লাইনম্যানের হাত ধরে ঘর ছেড়ে পালাল ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী

জেলা প্রতিনিধি;
প্রেমিকের হাত ধরে ঘর ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী তার প্রেমিক এবং প্রেমিকের বন্ধুসহ চারজনকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা।

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা বাসস্ট্যান্ড থেকে বুধবার বেলা ১টার দিকে তাদের আটক করা হয়। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

আটক প্রেমিক আলামিন হোসেন (২৪) তালা উপজেলার খেশরা ইউনিয়নের মুড়াগাছা গ্রামের আজহারুল ইসলামের ছেলে। পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যানের কাজ করেন তিনি। প্রেমিকা (১২) কালিগঞ্জ উপজেলার মুকুন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা ও ধুলিহা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

আটক আলামিন হোসেনের বন্ধু মুজাহিদ হোসেন একই গ্রামের বাসিন্দা। আটক অপর যুবক ইসমাইল হোসেন মোটরসাইকেল চালক সাতক্ষীরা সদরের নারকেলতলা এলাকার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কালিগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে তিন ছেলে ও একটি মেয়ে ঘোরাফেরা করছিল। তাদের চলাফেরা দেখে সন্দেহ হওয়ায় প্রথমে তিন ছেলেকে আটক করে জনতা। পরে মেয়েটিকেও পাশের একটি বাড়িতে আটকে রাখা হয়। পরে থানায় খবর দিলে কালিগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই সোহেল তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কালিগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহেল হোসেন বলেন, একটি মেয়ে ও তিনটি ছেলেকে আটক রাখা হয়েছে- এমন সংবাদে ঘটনাস্থল থেকে তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। তিন ছেলেকে একটি বাসের মধ্যে আটকে রাখে স্থানীয়রা। মেয়েটিকে পাশের একটি বাড়িতে আটকে রাখা হয়। পরে তাদের উদ্ধার করা হয়।

কালিগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার সুধাংশু বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মেয়েটি জানিয়েছে আটক আলামিন হোসেনের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। প্রেমের সূত্র ধরে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দিতে বাড়ি থেকে পালায় তারা। কালিগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে বাসের অপেক্ষায় ছিল তারা। ওই সময় তাদের আটক করে স্থানীয় জনতা। তবে তারা কোথায় যাচ্ছিল সেটি এখনো জানা যায়নি। মেয়ে ও ছেলে উভয় পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়া হয়েছে। তারা আসলেই পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।