• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

বিকাল ৫:২১

রমজানে নিত্যপণ্যের দাম অস্বাভাবিক হবে না: কৃষিমন্ত্রী


কৃষিমন্ত্রী ডক্টর আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন আসন্ন রমজানে নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক হবে না। আগে রোজা আসলেই পেয়াঁজ, বেগুনসহ বিভিন্ন নিত্যপণ্যের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যেত, কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর থেকে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে না।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদকে তিনি এ কথা বলেন।

আরেক প্রশ্নের উত্তরে কৃষিমন্ত্রী বলেন: এবছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান এবং আলু উৎপাদন হয়েছে।

সরকারি দলের বেনজীর আহমদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন: চাহিদার চেয়ে বেশি খাদ্য উৎপাদন হওয়ায় বর্তমানে দেশে খাদ্যের কোন ঘাটতি নেই। দেশে বর্তমানে ১৬ কোটি ৫০ লাখ জনসংখ্যার জন্য প্রতিদিন প্রতিজনের ৫০৯ গ্রাম হিসাবে বছরে ৩ কোটি ৬ লাখ ৫৫ হাজার মেট্রিক টন খাদশস্যের চাহিদা রয়েছে।
‘‘২০১৭-১৮ অর্থ বছরে নীট ৩ কোটি ২৮ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য উপাদন হয়। এর মধ্যে ৩ কোটি ১৯ লাখ ৫৫ হাজার টন চাল এবং ৯লাখ ৩৪ হাজার টন অন্যান্য খাদ্যশস্য রয়েছে। এ হিসাবে ২২ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য উদ্বৃত্ত উৎপাদন হয়েছে।’’

খাদ্যমন্ত্রী সরকারি দলের শহীদুজ্জামান সরকারের অপর এক প্রশ্নের জবাবে বলেন: আসন্ন বোরো মৌসুমে সরকার কৃষকদের কাছ থেকে মোট ১৩ লাখ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি জানান: এরমধ্যে ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধান, ১০ লাখ মেট্রিক টন চাল ও ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন আতপ চাল রয়েছে। প্রতি কেজি ধানের সংগ্রহ মূল্য ২৬ টাকা, সিদ্ধ চালের প্রতিকেজি ৩৬ টাকা ও আতপ চালের প্রতি কেজি ৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এছাড়া চলতি মাস থেকেই এ সংগ্রহ অভিযান শুরু করা হবে বলে সংসদকে জানান তিনি।