• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ৯ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৭শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ২:৫৩

‘যুক্তরাষ্ট্র পাগল হয়ে গেছে’


আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানের তথ্যমন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে ইন্টারনেট বন্ধে ভূমিকা রাখার কারণে তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ওয়াশিংটন। ইরানে দাঙ্গা দীর্ঘস্থায়ী করতে না পেরে যুক্তরাষ্ট্র পাগল হয়ে গেছে বলে দাবি করেছে দেশটির ইসলামি বিপ্লবী গার্ড আইআরজিসি। এরমধ্যেই ইরানে সাম্প্রতিক নাশকতায় মদদ দেয়ার অভিযোগে শতাধিক নেতাকে আটক করা হয়েছে।
সম্প্রতি জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়াবহ সহিংসতা চালায় আন্দোলনকারীরা। তবে, কোনো সাধারণ জনগণ এভাবে দেশের সম্পদ নষ্ট করতে পারে না বলে দাবি স্থানীয়দের। একই দাবি করেছেন দেশটির বিশিষ্ট ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খাতামি। বলেন, সাম্প্রতিক নাশকতার পেছনে মার্কিনদের হাত রয়েছে। নাশকতাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান তিনি। এমন সহিংসতায় জড়িতদের ছাড় দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশটির বিচার বিভাগের প্রধান।
শুক্রবার মার্কিন রাজস্ব মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে, ইরানে ইন্টারনেট বন্ধে ভূমিকা রাখায় দেশটির তথ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ আজারি জাহরোমির যুক্তরাষ্ট্রের আওতায় থাকা সম্পত্তি জব্দ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে, ইরানের সর্বোচ্চ বিপ্লবী গার্ড আইআরজিসির দাবি, তেহরান বিরোধী ষড়যন্ত্র নস্যাৎ হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওয়াশিংটন।
পেট্রলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়ার পরপরই তেহরানে বিক্ষোভে নামে হাজারো মানুষ। শুরুতে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ হলেও পরে তা রূপ নেয় সহিংসতায়। নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে শতাধিক মানুষ নিহত হয় বলে দাবি, বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের। তবে, তাদের দাবি প্রত্যাখ্যান করে ইরান।

নতুন কাগজ/আরকে