• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৯শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৫ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

ভোর ৫:০৭

ময়মনসিংহে হত্যা মামলায় ১১ জনের যাবজ্জীবন


ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে কলেজছাত্র শিহাব হাসান (২০) হত্যা মামলার রায়ে ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেকের বিশ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার ময়মনসিংহের বিশেষ দায়রা জজ আদালতের বিচারক এহসানুল হক এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন দোগাছিয়া গ্রামের হাফিজ উদ্দিনের ছেলে মোফাজ্জল হোসেন (২৬), রইস উদ্দিনের ছেলে পলাশ (২২), আব্দুল মতিনের ছেলে মোস্তফা কামাল (৩০), নূরুল ইসলামের ছেলে জজ মিয়া (২৩), লোকমান হাকিমের ছেলে খোকন মিয়া (৩৫), ওয়াজেদ আলীর ছেলে ইলিয়াস (১৮), নিধিয়ার চর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মামুন (২১), বরকীরচর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে সবুজ মিয়া (২০), দিঘীরপাড় গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে আলম মিয়া (২২), আব্দুস সাত্তারের ছেলে সোহাগ মিয়া (১৮) ও আব্দুল বারীর ছেলে আনোয়ার (১৯)। এদের মধ্যে আনোয়ার, সোহাগ ও আলম পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার দীঘিরপাড় গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে গুরুদয়াল কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র শিহাব হাসান ২০১২ সালের ১৯ অক্টোবর বাদ আসর বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। পরে ২১ অক্টোবর বিকেল ৩টার দিকে মোবাইলে শিহাবের মা সেলিনা খাতুনকে জানানো হয় যে, তার ছেলের মরদেহ স্থানীয় গলাকাটা বাজারের ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শিহাবের মা পাগলা থানায় ডিমের ব্যবসা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে তার ছেলেকে হত্যার অভিযোগে আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

সাত বছর পর বুধবার এই মামলার রায় ঘোষণা করা হলো। রায়ে ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়া পলাতক তিন আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।