• ঢাকা
  • বুধবার, ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

রাত ৩:০১

মিরাজের ওপর ক্ষোভ ঝাড়েন পাপন


স্পোর্টস ডেস্ক: বিসিবি সভাপতি জানিয়েছিলেন, সমাধানে পৌঁছতে ক্রিকেটারদের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু কেউই তার ফোন ধরেননি।
যেহেতু ক্রিকেটাররা সবাই ঐক্যবদ্ধ ছিলেন, তাই কোনো একজন আলাদা করে ফোন ধরার কথাও নয়। তবে বিসিবি সভাপতি এই বিষয়টি খুব ভালোভাবে নেননি। সিনিয়রদের হয়তো সেভাবে কিছু বলতে পারেননি। কিন্তু সংবাদ সম্মেলনের শুরুর আগেই তিনি ক্ষোভ ঝাড়েন জুনিয়র ক্রিকেটার মেহেদী হাসান মিরাজের ওপর।
মিরাজকে ধমক দিয়ে পাপন বলেন, মিরাজ, আমি তোমার জন্য কি করিনি? বাদ পড়ার পর তোমাকে আমিই দলে ফিরিয়েছি। তুমি আমার ফোন ধরো না? আজকের পর থেকে আমি ফোন থেকে তোমার নম্বরই ডিলিট করে দেব।
বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বুধবার (২৩ অক্টোবর) সংকট কাটিয়ে ওঠা সংবাদ সম্মেলনে যতই হাসিমুখে কথা বলুন, ক্রিকেটারদের নিয়ে ভেতরের চাপা ক্ষোভ হয়তো রয়েই গেছে।
আপাত সুরাহা হলেও ভেতরের সমস্যা কি আসলেই পানির মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে? ক্রিকেটারদের এই আন্দোলনকে বিসিবি কি আসলেই সহজভাবে নিতে পেরেছে?
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ক্রিকেটারও জানান, মিটিংয়ের শুরুতেই মিরাজকে দেয়া বোর্ড সভাপতির ওই ধমকের পর তাদের মনেও ভয় ঢুকে যায়। ওই ক্রিকেটার বলেন, ‘মিরাজের ওই ঘটনার পর আমরা ভয় পেয়ে যাই। মিটিংটা যেভাবে শুরু হয়েছে, আমরা বেশি কথা বলার সাহসই পাচ্ছিলাম না। সাকিব আমাদের পয়েন্ট তুলে ধরেছেন। তবে বাকিদের কেউই দরকষাকষি করার মতো মানসিকতায় ছিলেন না। আমাদের বলা হয়েছে সব দাবি মানা হবে, তবে সত্যিকার অর্থে বিস্তারিত কিছু জানতে পারিনি।’
গত কয়েকটা দিন দেশের ক্রিকেটের ওপর দিয়ে বড়সড় ঝড়ই বয়ে গেছে। ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে রীতিমত অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছিল। অবশেষে ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনার পর দাবি মেনে নিতে সম্মত হয়েছে বিসিবি। ক্রিকেটাররাও মাঠে ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনের পরের পর্যায়ে পাপন খেলোয়াড়দের প্রতি কিছুটা নমনীয় হয়ে খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘তোমাদের ওপর আমার রাগ ছিল, তবে এখন সেটা পড়ে গেছে। তোমরা বলো, শুনি তোমাদের দাবিদাওয়া।’
সব শোনার পর ক্রিকেটারদের দাবি মানা হবে বলে আশ্বস্ত করেন পাপন। বোর্ড সভাপতির কাছ থেকে আশ্বাসবাণী শোনার পর খেলায় ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন সাকিবরাও।

নতুন কাগজ/আরকে