• ঢাকা
  • সোমবার, ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৪ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

সকাল ১১:৪৮

ভারতে ধর্ষণের অভিযোগ সাবেক মন্ত্রী গ্রেফতার


আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের বিজেপি নেতা ও সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্বামী চিন্ময়ানন্দকে ধর্ষণের অভিযোগে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর)বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)-এর কর্মকর্তারা তাকে উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরের আশ্রম থেকে গ্রেফতার করেন। সিট’-এর কর্মকর্তা জানিয়েছেন, চিন্ময়ানন্দকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য শাহাজাহানপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
উত্তরপ্রদেশের ২৩ বছরের এক আইনের ছাত্রী সোমবার মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে এক বয়ানে বলেন, স্বামী চিন্ময়ানন্দ গত এক বছর ধরে তাকে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করেছেন। নির্যাতিতা ওই তরুণীর অভিযোগ, বিজেপির এই নেতা তাকে ধর্ষণ করেছেন। তিনি চিন্ময়ানন্দের সেসব ‘কুকীর্তি’ গোপন ক্যামেরায় রেকর্ড করেছেন।
চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে প্রমাণ হিসেবে মোট ৪৩টি ভিডিও পেন ড্রাইভে করে তদন্তকারীদের কাছে জমা দিয়েছেন ওই তরুণী। তদন্তকারীরা ওই তরুণীকে সঙ্গে নিয়ে তার কলেজের হোস্টেলসহ চিন্ময়ানন্দের বেডরুমে গিয়েও তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহ করেছেন।
স্বামী চিন্মায়ানন্দের আইনজীবী পূজা সিংহ বলেন, তার মক্কেলকে তার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিচার বিভাগীয় প্রক্রিয়া অনুযায়ী তিনি পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।
অভিযুক্ত বিজেপি নেতা স্বামী চিন্মায়ানন্দের দাবি, শিগগিরই তিনি একটি বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করতে যাচ্ছেন। কিছু লোক চাচ্ছে যে, এটা যাতে নির্মাণ না হয়। এ কারণেই তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।
চিন্মায়ানন্দের আসল নাম কৃষ্ণপাল সিংহ। তিনি উত্তর প্রদেশের গোন্ডার বাসিন্দা। চিন্মায়ানন্দ একসময় রাম মন্দির আন্দোলনের অন্যতম বড় নেতা ছিলেন। তিনি প্রয়াত বিজেপি নেতা ও প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী সরকারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। বিজপির টিকিটে তিনি ১৯৯১, ১৯৯৮ ও ১৯৯৯ সালে এমপি নির্বাচিত হন।

নতুন কাগজ/আরকে