• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৯ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

ভোর ৫:১৯

বিয়ের উপহার দেখার সময় পাননি নুসরাত-নিখিল


জমকালো বিয়ে এবং রিসেপশনের অনুষ্ঠান শেষ করে কাজে ফিরলেন তারকা ও পশ্চিমবঙ্গ থেকে লোকসভার নবনির্বাচিত সদস্য নুসরাত জাহান। শনিবার সকালে অভিনেত্রী তার নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে সারাদিন বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত ছিলেন।

বিয়ের পরে কাজে ফেরা প্রসঙ্গে ভারতের সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়াকে নুসরাত বলেছেন, শনিবার সকালে বসিরহাট পৌঁছেছি। নিজের নির্বাচনী এলাকার মানুষের ভালোবাসায় আপ্লূত। এমনকি ছাত্রনেতারাও আমাকে এবং নিখিলকে শুভেচ্ছা জানাতে এসেছেন। আর কী চাই আমার? আমার এখনও মনে পরে যখন প্রচারণার জন্য আসতাম তখন তারা আমার সঙ্গে কত আন্তরিক ছিলেন। অবিশ্বাস্য!

নুসরাত আরও বলেন, সোমবার সকাল ৭টায় দিল্লির উদ্দেশ্যে কলকাতা ছাড়বো। দিল্লির বাসা গুছাতে হবে।

নিখিলও কি দিল্লি যাবেন কিনা প্রশ্ন করায় নুসরাত বলেন, হয়তো দুই দিনের জন্য যাবে, এরপর ফিরে আসবে। কিন্তু আমার থাকতে হবে কাজের জন্য।

নুসরাত আরও বলেন, আমার নতুন ফ্ল্যাট গুছাতে হবে, কিন্তু সময় পাচ্ছি না। আমার শাশুড়ি এবং ননদের প্রতি কৃতজ্ঞ। তারা প্রাথমিকভাবে গুছিয়ে দিয়েছেন আমার ফ্ল্যাটটা। এখন বাকি কাজ আমাদের দুজনের করতে হবে। মায়ের বাড়িতে বিয়ের উপহারগুলো আছে। সেগুলো দেখার সময় পাইনি এখনো। প্রতিটি উপহারই আমাদের কাছে খুবই স্পেশাল। তাই আমি আর নিখিল নিজেদের হাতে সেগুলো খুলতে চাই।

বৃহস্পতিবার ছিল টলিউডের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। যেখানে অতিথি হিসেবে দেখা গেছে পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সদস্য, টলিউডের শীর্ষ অভিনেতা-অভিনেত্রীসহ সব অঙ্গনের উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্বদের।

কলকাতার ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে গেল মাসেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তারকা ও পশ্চিমবঙ্গ থেকে লোকসভার নবনির্বাচিত সদস্য নুসরাত জাহান। তবে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান হয় তুরস্কের বোদরুম শহরে। সে অনুষ্ঠানে কাছের বন্ধু বান্ধব ও আত্মীয় ছাড়া আর কেউ ছিল না। তখনই নুসরাত জানিয়েছিলেন যে, শিগগির কলকাতায় হবে তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান।