• ঢাকা
  • শনিবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৯শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ২:২৬

বিজেপির জয়ের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলেন মমতা


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে লোকসভা নির্বাচনে সাত দফার ভোট শেষে সব বুথ ফেরত জরিপ প্রায় একই আভাস দিচ্ছে। এসব জরিপ থেকে একটা বিষয় স্পষ্ট হয়ে উঠেছে যে, শরিকদের নিয়ে আবারও কেন্দ্রে সরকার গড়তে চলেছেন নরেন্দ্র মোদি। তবে বেশির ভাগ বুথ ফেরত জরিপ মোদিকে এগিয়ে রাখলেও তা মানছেন না পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

এসব জরিপকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়ে ইভিএম কারচুপির অভিযোগ এনেছেন এই তৃণমূল নেত্রী। অবশ্য বুথ ফেরত জরিপ অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখতে অনেকটাই সফল তৃণমূল। বিজেপির আসন অনেকটা বাড়লেও সংখ্যার হিসেবে রাজ্যের ক্ষমতার লাগাম থাকছে মমতার হাতেই।

বুথ ফেরত জরিপের ফলাফল সামনে আসার পর এক টুইট বার্তায় মমতা বলেন, আমি এসব বুথ ফেরত সমীক্ষার ‘গসিপে’ বিশ্বাস করি না। এসব গুজব ছড়িয়ে দিয়ে হাজার হাজার ইভিএম পাল্টে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। আমি সমস্ত বিরোধী দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ, শক্তিশালী এবং সাহসী থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। এই লড়াই আমরা সবাই একসঙ্গে লড়ব।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে মমতা বলেন, পুরোটাই গসিপ। এরা কেউ ভগবানের দূত নয়। এদের থিওরি বিশ্বাস করি না। এটা একটা চক্রান্ত। ইভিএম পাল্টে দিতে পারে। এটা আমার সন্দেহ। ইতোমধ্যেই আমার চার-পাঁচজনের সঙ্গে কথা হয়েছে। ভাল করে পাহারা দিন। কোনওভাবেই যাতে ইভিএম পাল্টাতে না পারে। তার দাবি, পুরোটাই নরেন্দ্র মোদির পরিকল্পনা, যাতে বিরোধীরা জোট বাঁধতে না পারে।

তবে প্রায় সবগুলো বুথ ফেরত সমীক্ষাই বলছে, কেন্দ্রে সরকার গড়ার লড়াইয়ে বাকিদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ। বুথ ফেরত সমীক্ষায় দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা বেশ উজ্জ্বল নরেন্দ্র মোদির।