• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং | ১৯শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৮ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ১২:৫২

বিজরীওদিনারের গৃহকর্মীর রক্তাক্ত মরদেহ বাসার সামনে পড়ে ছিল


বিজরী বরকতউল্লাহ ও ইন্তেখাব দিনারের বাসার গৃহকর্মীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম তানজিন (১৫)। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১২টায় উত্তরার আজমপুর ৭ নম্বর সেক্টরের ৫ নম্বর রোডে রাজউক কমার্শিয়াল কমপ্লেক্সের পেছনের একটি ভবনের সামনে থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ বলছে, ৯তলা ভবনের ছাদ থেকে তানজিন লাফিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে কী কারণে সে আত্মহত্যা করেছে—সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, তানজিন সুনামগঞ্জ জেলার শালনা থানার আবদুল হাকিমের মেয়ে। উত্তরার ওই ভবনের ৮ তলায় এবি নম্বর ফ্ল্যাটে অভিনয়শিল্পী দম্পতি বিজরী বরকতউল্লাহ ও ইন্তেখাব দিনারের বাসায় গৃহকর্মী ছিল তানজিন।

উত্তরা পশ্চিম থানার এসআই সুকান্ত বলেন, গতকাল বেলা পৌনে ১২টায় স্থানীয়রা রক্তাক্ত লাশটি দেখতে পায়। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

তিনি বলেন, ওই কিশোরীকে সচরাচর ছাদে যেতে দেয়া হতো না। এমনকি ওই ভবনের কেউই তেমন ছাদে যায় না। কিন্তু গতকাল বেলা পৌনে ১২টায় ওই কিশোরী ছাদে গিয়ে লাফ দেয়। আশপাশের ভবনের বাসিন্দারা জানিয়েছে, তাকে লাফ দিতে দেখে ওই ভবনের পাশের ছাদে থাকা দুই জন নিষেধও করেন। কিন্তু সে কারো কথাই শোনেনি।

এক প্রশ্নের উত্তরে এসআই বলেন, কী কারণে তানজিন আত্মহত্যা করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, ওই বাসার সবাই তানজিনকে আদর করতেন। নিয়মিত নতুন জামা-কাপড়ও কিনে দিতেন।