• ঢাকা
  • শনিবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৯শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ১২:৪৪

বানের জলে নষ্ট হলো ২৫২ কোটি টাকার আউশ


তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলমান বন্যায় দেশের ৩১ জেলায় সাড়ে ছয় লাখের বেশি কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তাদের এ ক্ষতির আর্থিক পরিমাণ প্রায় ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা। বন্যার ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বন্যায় এখন পর্যন্ত ৩১ জেলার প্রায় ১ লাখ ৭২ হাজার হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে নষ্ট হয়েছে ৩ লাখ ২৮ হাজার টন বিভিন্ন ধরনের শস্য। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে আউশের। ৫০ হাজার ৬০২ হেক্টর জমিতে আউশের যে ক্ষতি হয়েছে, তার আর্থিক মূল্য প্রায় ২৫২ কোটি টাকা। এতে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের সংখ্যা ৯৭ হাজার ১৮৪।

এছাড়া ৯৫ হাজার ৫৭০ জন কৃষকের ২৫৯ কোটি ৭০ লাখ টাকার পাট ও ৮৮ হাজার ৪০৮ জন কৃষকের ১৫৪ কোটি ৮৩ লাখ টাকার বোনা আমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যায় আমন বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১৬ হাজার ৬৫৫ হেক্টর জমির। এতে ২ লাখ ৫৪ হাজার ৯৮৬ জন কৃষকের মোট ক্ষতির পরিমাণ ১২৬ কোটি টাকা। এছাড়া গ্রীষ্মকালীন সবজি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় প্রায় এক লাখ কৃষকের ক্ষতির পরিমাণ ২৯০ কোটি টাকা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পানি অনেকটা ধীরগতিতে নামছে। ফলে বন্যার প্রভাব আরো দীর্ঘ হতে পারে। সেক্ষেত্রে আমন ও আউশ উৎপাদন বাধাগ্রস্ত হতে পারে। এরই মধ্যে গ্রীষ্মকালীন সবজির উৎপাদন বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে। ফলে খুচরা বাজারে বেশকিছু সবজির দামও বেড়ে গেছে। অন্যদিকে পাট উৎপাদন শেষ পর্যায়ে থাকলেও বন্যার পানি নামতে দেরি করলে পাট খাতেও বড় ধরনের ক্ষতির শিকার হতে পারেন কৃষক।