• ঢাকা
  • সোমবার, ২১শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৬ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

রাত ৯:০২

নোয়াখালীতে ‘ভুয়া’ এমবিবিএস ডাক্তারকে ৮ মাসের কারাদন্ড


নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর মাইজদীতে এক ‘ভুয়া’ এমবিবিএস ডাক্তারকে ৮ মাসের বিনাশ্রম দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া নানা অনিয়ম পাওয়ায় প্রাইম হাসপাতাল নামে একটি বেসরকারি ক্লিনিককে দুই লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে জেলা প্রশাসন ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের উদ্যোগে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতে এসব দন্ড দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোকনজ্জামান। এসময় উপস্থিত ছিলেন ভোক্তা অধিকারের সহকারী পরিচালক দেবানন্দ সিনহা, সিভিল সার্জন ডা. মো. মমিনুর রহমান ও ড্রাগ সুপার মাসুদ হাসান। দ-প্রাপ্ত ব্যক্তির নাম নাজমুল হুদা। তিনি শহরের মাইজদীতে একটি ভাড়া বাসায় এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে চেম্বার খুলে রোগী দেখতেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে মাইজদীর উকিল পাড়ার একটি ভাড়া বাসায় চেম্বার খুলে নাজমুল হুদা নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে রোগী দেখছেন। কিন্তু তার বিষয়ে বিভিন্ন অভিযোগ পাওয়ার পর ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে হাতেনাতে আটক করে এবং এমবিবিএস ডাক্তার হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়। তাই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ৮ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন আদালত।

এদিকে আরেকজন ভুয়া ডাক্তারকে ধরতে প্রাইম হাসপাতালে অভিযানে যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। বিষয়টি টের পেয়ে ওই ভুয়া ডাক্তার পালিয়ে যান। পরবর্তীতে হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে নানা অনিয়ম পাওয়ায় তাদের দুই লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।