• ঢাকা
  • সোমবার, ২১শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৬ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

সকাল ১১:৪১

নিষিদ্ধ হতে পারেন রোনালদো-মেসি


স্পোর্টস ডেস্ক: ব্রেক্সিট নিয়ে টালমাটাল ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) ও ব্রিটেনের সম্পর্ক। কোনো প্রকার চুক্তি ছাড়া ৩১ অক্টোবর ইইউ থেকে ব্রিটেন সরে গেলে বিপাকে পড়তে পারেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসিদের মতো মহাতারকারা। কেননা, ট্যাক্স ফাঁকির মামলায় সাজা পেয়েছেন এমন খেলোয়াড়দের জন্য বন্ধ হয়ে যাবে ব্রিটেনে প্রবেশের দুয়ার!
কোনো প্রকার চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট রোধের চেষ্টা করছে ব্রিটেন। তবে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের নেতৃত্বাধীন সরকার এখন পর্যন্ত কোনো সমাধানে আসতে পারেনি ইইউর সঙ্গে। আইরিশ সীমান্তের বিতর্কিত ‘ব্যাকস্টপ’ ব্যবস্থা বাদ দিয়ে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে ইইউর কাছে যে চূড়ান্ত প্রস্তাব দিয়েছিলেন জনসন, তা বাস্তবায়ন না হলে অন্যকোন চুক্তিও হবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন ব্রেক্সিট বিষয়টি গভীরভাবে নজরে রাখা কয়েকজন পর্যবেক্ষক।
এমন হলে ব্রিটেনে প্রবেশের অধিকার হারাবেন ফুটবল বিশ্বের সেরা কয়েকজন তারকা। তালিকায় আছেন রোনালদো, মেসি, ডিয়েগো কস্তা, মার্সেলোদের মতো তারকারা। যারা প্রত্যেকেই ট্যাক্স ফাঁকির মামলায় জেল সাজা পেয়েছেন। ২০১৭ সালে ২১ মাসের জেল হয়েছিল মেসির। আর চলতি বছরের শুরুতে ২৩ মাসের জেলের সঙ্গে ১৮.৮ মিলিয়ন ইউরো জরিমানার দণ্ড পান রোনালদো। তবে প্রথমবার হওয়ায় জেলে যেতে হয়নি কাউকেই।
ব্রেক্সিট সম্পাদিত হলে ইইউভুক্ত দেশগুলোর নাগরিকদেরও ব্রিটেনে প্রবেশে ভিসার প্রয়োজন হবে। আর ট্যাক্স ফাঁকির মামলা বা অন্য অপরাধের জন্য সাজা পেয়েছেন এমন নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশ করতে না দেয়ার বিধান আছে ব্রিটেনে। ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে বা অন্যকোন কাজে আর ব্রিটেনে ঢুকতে পারবেন না মেসি-রোনালদোরা।
বিষয়টি আরও পরিষ্কার করেছেন ব্রিটেনের আইনি-সংস্থা লুইস সিল্কিনের আইনজীবী অ্যান্ড্রু ওসবোর্ন, ‘ধরুন আপনি একজন ইইউর নাগরিক। আর আপনার নামের পাশে অপরাধীর দাগ আছে। সেক্ষেত্রে আপনাকে আর যুক্তরাজ্যে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে না।’
ব্রিটেনের এই আইনের প্রভাব পড়তে পারে ইউরোপের অন্য লিগগুলোতেও। দলের সেরা তারকারা নিষিদ্ধ হলে ব্রিটেন সফরে নিজেদের বিরত রাখতে পারে বার্সেলোনা-জুভেন্টাসের মতো জায়ান্ট দলগুলো!

নতুন কাগজ/আরকে