• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১২ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৭শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৪ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

রাত ১১:০২

দেশে বছরে ফুসফুস সংক্রান্ত ব্যাধিতে মৃত্যু ৬৮ হাজার ৪৬২ জন


অনলাইন ডেস্ক : শ্বাস-সংক্রান্ত রোগ-ব্যাধিকে দেশের বড় স্বাস্থ্য সমস্যা হিসাবে অভিহিত করে একে মোকাবেলার জন্য জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান জানিয়ে ফুসফুস স্বাস্থ্য এর ওপর এক আন্তর্জাতিক সম্মেলন রাজধানীতে সমাপ্ত হয়েছে।

‘পালমোকন ২০১৯’ এই শিরোনামে বাংলাদেশ লাং ফ্উান্ডেশন (বিএলএফ ) কর্তৃক আয়োজিত রাজধানীর বংগবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৬ষ্ঠ আন্তর্জাতিক সম্মেলন আজ (নভেম্বর ৮) সমাপ্ত হয়েছে।

বিএলএফ এর সভাপতি প্রফেসর মো. আলী হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আসিফ মুজতবা আহমেদ, বিএলএফ এর প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য প্রফেসর মো. রুহুল আমীন, পালমোকন এর কংগ্রেস চেয়ার প্রফেসর মো. রশিদুল হাসান অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সহ বিশ্বের ১৮টি দেশের প্রায় ১৩০০ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। তিনদিন ব্যাপী এই সম্মেলন চলাকালে বিভিন্ন কর্মশালা ও সায়িন্টিফিক সেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফুসফুস স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনাতা সৃষ্টি ও পালমোনলজি বিষয়ে সর্বশেষ গবেষণার ফলাফল দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে ফুসফুস স্বাস্থ্য এর উন্নতিকল্পে বিএলএফ এই সম্মেলনের আয়োজন করে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা সম্মেলনে আলোচনাকলে জানান যে, দেশে রোগ-ব্যাধির কারণে মোট মৃত্যুবরণকারীর মধ্যে ৬৮,৪৬২ জন (৮.৬৯%) ফুসফুস সংক্রান্ত ব্যাধির কারণে মৃত্যুবরণ করে। প্রতি বছর আমাদের দেশে শুধুমাত্র এ্যজমা রোগেই প্রায় ৭০ লাখ লোক আক্রান্ত হয় এবং ৭০,০০০ টিবি রোগী এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।

বাংলাদেশ লাং ফ্উান্ডেশনের একটি গবেষনা রিপোট এর তথ্য তুলে ধরে সম্মেলনে জানানো হয় যে, কর্মে নিয়োজিত লোকদের মধ্যে ব্যাপক সংখ্যক বিভিন্ন ধরণের শ্বাস সংক্রান্ত রোগে ভুগছে। আমাদের দেশে বায়ু দূষন, জলবায়ূ পরিবর্তন এবং তামাকজাত দ্রব্য গ্রহণের কারণে ফুসফস সংক্রান্ত বিভিন্ন ব্যধির ঝুকি তৈরী হচ্ছে বলে জানানো হয়। বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান জানিয়ে ফুসফুস স্বাস্থ্য সংক্রান্ত ঝুকি মোকাবেলায় জরুরীভিত্তিতে ব্যাপক কর্মসূচী হাতে নেওয়া উচিত বলে বক্তারা মনে করেন।

সম্মেলনে আশা প্রকাশ করা হয় যে, সম্মেলনে অংশগ্রহণকারীরা তাদের গবেষণা ও ক্লিনিক্যাল অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে উক্ত রোগসমূহ চিকিৎসার ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে আরো কার্যকর ভূমিকা পালনে সক্ষম হবেন।

২০০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত বিএলএফ এই বছর তার ১২ বছর পূর্তির অনুষ্ঠান পালন করছে। প্রতিষ্ঠালগ্ন হতে বিএলএফ ফুসফুস সংক্রান্ত ব্যাধি মোকাবেলার লক্ষ্যে সঠিক কর্মকেীশল নির্ধারণে কাজ করে চলেছে।

ন/ক/র