• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সকাল ৬:১৯

দুর্গাপুর থানার ওসির নান্দ্যনিক উদ্যোগে মাসব্যাপী ইফতার ও দোয়া মাহ্ফিল


দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান একান্ত প্রচেষ্টায় মাসব্যাপী ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হচ্ছে। দুর্গাপুর থানার গ্যারেজ রুমটিকে সজ্জিত করে নান্দনিক পরিবেশে ১ম রোজা থেকে এই ইফতার ও দোয়া কর্মসূচির উদ্ধোধন করা হয়।

প্রতিদিন থানার সকল ষ্টাফ,স্থানীয় গণমান্য,সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, দরিদ্র, অতিদরিদ্র,পথচারী,থানা হাজতে থাকা ব্যক্তিদ্বয়ের মিশ্র মিলন মেলায় এই ইফতার কর্মসূচি পালিত হয়ে আসছে। ওই ইফতার মাহফিলের মোনাজাত পরিচালনা করেন থানা মসজিদে পেশ ঈমাম মাওলানা হারিছ উদ্দিন।

গতকাল মঙ্গলবার ওই ইফতার কর্মসূচীতে উপস্তিত ছিলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(দুর্গাপুর সার্কেল) মোঃ সাইদুর রহমান, দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান,সেকেন্ড অফিসার মোঃ মাহবুবুল আলম,শিশু বিষয়ক পুলিশ কর্মকর্তা এস.আই আঃ হালিম, এস.আই মুজিবুর রহমান, এস.আই আতোয়ার রহমান,এস.আই আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমূখ।

এ কর্মসূচির উদ্যোগের বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় সার্কেল এএসপি মোঃ সাইদুর রহমান প্রতিবেদককে বলেন,পবিত্র মাহে রমজান গুনাহ মাফের মাস। মুসলমানদের পবিত্র ও আত্ত্বা শুদ্ধির মাস হলো রোজা। রোজার হুকুম আহ্কাম গুলো মেনে চলা প্রত্যেকমুসলমানদের নৈতিক দায়িত্ব। তাই সকলে মিলে একসাথে ইফতার নেওয়া ও আল্লাহতালাহর কাছে দোয়া করা সকল মুসলিম উম্মার জন্যে উৎকৃষ্ট সময় হলো ইফতারের পূর্বের মোনাজাতটুকু। এরই ধারাবাহিকতায় ওসি সাহেবের সার্বিক নির্দেশনায় এই মহতি আয়োজন প্রতিদিন পালিত হচ্ছে। আমি অতন্ত আনন্দিত,উচ্ছ্বসিত,উদ্ধেলিত।

মাসব্যাপী এই কর্মসূচীর নায়ক ও উদ্যোক্তা দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সকলে মিলে ইফতার করা যায় কিনা এটা আমার প্রাথমিক পরিকল্পনা আর এথেকেই আজকের বাস্তবতা। আমি উদ্যোগ নিয়েছি আর অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশে,আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনে,পৃথিবীর সকল মুসলীম ঊম্মতের শান্তি কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহমিল অনুষ্টিত হচ্ছে প্রতিদিন। এ ধারা শেষ রোজা পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।