• ঢাকা
  • সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৫ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

রাত ২:০৩

দুর্গাপুরে আকস্মিক ঝড়ে শতাধিক বাড়ি বিধ্বস্থ, আহত ৪


দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি: নেত্রকোনার দুর্গাপুরে আকস্মিক ঝড়ে একশ’র বেশী বাড়িঘর বিধ্বস্থ,গাছপালার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। গত মঙ্গলবার ভোররাতে চন্ডিগর ইউনিয়নের ফুলপুর নামাপাড়া গ্রামে ৪০মিনিটের ঝড়ে এ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, চন্ডিগর ইউনিয়নের ফুলপুর নামাপাড়া,নোয়াগাঁও,লীলাখালী,দলাইগঞ্জ গ্রামে সোমবার দিনরাতে ১.২০মিনিটের সময়ে প্রচন্ড ঝড় হয়। ওই দিন রাতেই প্রায় ৮০/৯০টি কাচা বাড়িঘর ঝড়ো বাতাস উপরে নিয়ে যায়। অনেকর ঘরবাড়ী উড়িয়ে নিয়ে একস্থান থেকে অন্যস্থানে নিয়ে যায়। কোনমতে বৃষ্টিতে ভিজে অনেকের রাত কাটে। পরদিন মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে আবার প্রচন্ড বাতাসের সাথে আঘাত আনে ঝড়। এই ঝড়ে আরোও বেশ’কটি ঘরবাড়ীর ক্ষতি হয়। আগের দিনের ঝড়ের কবলে পড়া অনেকের শোয়ার জায়গা না থাকায় উঠোনে থ্রিপলের তাবু গেড়ে রাত কাটানোর চেষ্টা করে। এদিন রাতে আবার ঝড়ের আঘাতে ৯বছর বয়সী শিশু শরীফের মাথায় ঘরের চালের টিন উড়ে এসে লাগে। তৎক্ষনাত মাটিতে লুটিয়ে পড়ে শিশুটি,উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্ত্যরত চিকিৎসক শিশুটির মাথার মেঝেতে ১৬টি সেলাই করে দেয়।

শিশুটির মা সখিনা খাতুন বলেন, আমার একটি মাত্র ঘর ছিল। ভাইয়ের বাড়ীতে থাকিয়া, অন্যের বাড়ীতে কাজকাম কইরা শিশুটিকে নিয়া দিন চালাইতেছি। আল্লাহর কি দয়া আমার থাকার একমাত্র সম্বল ঘরটিই নিয়ে গেলো এই ঝড়ে..? ঘর ভেঙ্গে যাওয়াদের অনেকের মধ্যে তারা হলেন সখিনা থাতুন(৩৬),আবুল হোসেন,আমেনা খাতুন,ইজ্জত আলী, আবুল হোসেন,মোফাজ্জল হোসেন,স্বপন মিয়া,তারা মিয়া, আঃ মজিদ,রহিত মিয়া,মউ গ্রামের লুৎফুর রহমানের বসতঘর ও গাছপালা ভেঙ্গে ফেলেছেও জানা যায়।

ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থদের খোঁজ নিয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জান্নাতুল ফেরদৌস আরা প্রতিনিধিকে বলেন, আমি খোঁজ নিয়েছি এবং ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থদের সার্বিক সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান।