• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

বিকাল ৪:২৩

ঢাবি ছাত্রী চেতনার মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন হবে কি ?


সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী সদা হাস্যজল মোছাঃ রওশন জাহান চেতনার অসাভাবিক মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন হবে কি? এ প্রশ্ন এলাকাবাসী ও স্বজনদের।

জানাগেছে, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কান্দাপাড়া গ্রামের মুক্তা তালুকদার ও রুমা তালুকদারের অতি আদরের বড় কন্যা চেতনা। তাকে স্কুল, কলেজের গন্ডি পেরিয়ে বুক ভরা আসা নিয়ে ভর্তি করেন ঢাকায়। সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড এন্ড নিউষ্ট্রেশন বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্রী ছিলো।

গত বছর পরিচয় সূত্রে হঠাৎ করেই ঢাকায় ১/৮ দক্ষিন মুগ্দা নিবাসী মুস্তাফিজুর রহমানের ছেলে আরিফ রহমান শিবলীর সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের বছর ঘুরতে না ঘুরতেই গত ১২ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাতের দিনে বিকেলে ৪ টার সময় চেতনা তার মাকে ফোন করে ছোট খাট কিছু জিনিস তার ছোট ভাইকে দিয়ে ঢাকায় (চেতনার স্বামীর বাসায়) পাঠাতে বলে আর ঔ দিনই বিকেল ৫ টায় চেতনার শশুর ফোন করে জানায় চেতনা আত্মহত্যা করেছে।

এ খবর শুনে শোকে পাথরের মুর্তীর মত হয়ে গিয়েছিল মুক্তা তালুকদারের পরিবারের লোকজন। একটা কথাই বার বার মনের মাঝে প্রশ্ন হয়ে দেখা দিলো, এটা কি করে সম্ভব। মুহুর্তের মধ্যেই এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পরলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। ঢাকা থেকে স্বজনেরা চেতনার মরাদেহ গ্রামের বাড়িতে নিশে আসে।চেতনাকে এক নজর শেষ দেখা দেখতে শত শত নারী পুরুষ  তার বাড়িতে ভীড় জমায়। পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

চেতনার মৃত্যু রহস্য উদঘাটন ও দোষীদেরকে আইনের আওতায় আনার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানান স্বজনেরা ও এলাকাবাসী।