• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৯ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

ভোর ৫:০৯

টাইগ্রেসদের রোমাঞ্চকর জয়


স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশ দলের ব্যাটিংয়ের একটি মুহূর্তশেষ ওভারে পাপুয়া নিউগিনি নারী দলের দরকার ১১ রান। আগের ওভারে ১৪ রান নেওয়ায় দুশ্চিন্তা ভর করে বাংলাদেশ নারী দলের ক্যাম্পে। তবে কোনও অঘটন ঘটতে দেননি নাহিদা আক্তার। এই স্পিনারের শেষ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে পাপুয়া নিউগিনি নিতে পারে মাত্র ৪ রান। তাতে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ডাকওয়ার্থ-লুইস মেথডে বাংলাদেশ পায় ৬ রানের জয়।
স্কটল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে ছিল বাংলাদেশের উদ্বোধনী ম্যাচ। কিন্তু বৃষ্টির কারণে শনিবারের সূচি রিজার্ভ ডে’তে গড়ায় সোমবারে। এর মধ্যে অবশ্য বাংলাদেশ মাঠে নামার সুযোগ পেয়ে যায় রবিবারই, যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে যে ম্যাচটি জয় দিয়ে রাঙিয়ে নেয় তারা। এবার সোমবারের ম্যাচটিও জিতে নিয়ে টানা দুই জয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষে বাংলাদেশের মেয়েরা।
বৃষ্টির কবলে পড়েছিল বাংলাদেশ-পাপুয়া নিউগিনির ম্যাচ। নির্ধারিত সময়ের অনেকটা সময় পর খেলা শুরু হলে ম্যাচের ব্যাপ্তি কমে দাঁড়ায় ১৭ ওভার। ফর্টহিলে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশের মেয়েরা সেই ওভারও শেষ করতে পারেনি! ১৬.৩ ওভারে ৮ উইকেটে ১০৩ করার সময় আবারও বৃষ্টি নামলে ওখানেই শেষ হয় সালমা খাতুনদের ইনিংস।
বৃষ্টির বাগড়াও ছিল লম্বা সময়। তাই ডাকওয়ার্থ-লুইস মেথডে পাপুয়া ‍নিউগিনির লক্ষ্য ঠিক হয় ৮ ওভারে ৫৯। যে লক্ষ্যে খেলতে নেমে তারা করতে পেরেছে ৫ উইকেটে ৫২ রান।
টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশের টপ অর্ডার একেবারেই সুবিধা করতে পারেনি। ওপেনার সানজিদা ইসলাম ৩২ বলে ১৯ রান করলেও ব্যর্থ হয়েছেন আয়েশা রহমান (৪), নিগার সুলতানা (৬), রিতু মনি (৩), শায়লা শারমিন (৫) ও ফারজানা হক (১১)।
বাংলাদেশের রান ১০০ ছাড়ায় ফাহিমা খাতুনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে। সাত নম্বরে নেমে ১৮ বলে ৫ বাউন্ডারিতে তিনি খেলেন হার না মানা ৩২ রানের ইনিংস। তার সঙ্গে ৭ বলে ৭ রান করে অপরাজিত থাকেন নাহিদা।
বল হাতে এই নাহিদার ভেল্কিতেই বাংলাদেশ পেয়েছে চমৎকার জয়। ২ ওভারে মাত্র ১০ রান দিয়ে তার শিকার ৩ উইকেট। বিশেষ করে শেষ ওভারে তার বোলিং ছিল খুবই কার্যকর। রিতু মনিও অবদান রেখেছেন, ২ ওভারে ৯ রান খরচায় তার শিকার ২ উইকেট। পাপুয়া নিউগিনির হয়ে সর্বোচ্চ ১২ রান এসেছে তানিয়া রুমার ব্যাট থেকে।

নতুন কাগজ/আরকে