• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

বিকাল ৫:০৬

জয়ের লক্ষ্যে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ, প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ


আজ ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রথম মাঠে নামছে টাইগাররা। এ ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইতোমধ্যে বড় জয় দিয়ে আসর শুরু করেছে ক্যারিবীয়রা। জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করাই প্রধান লক্ষ্য বাংলাদেশের। ডাবলিনের ক্যাসল এভিনিউতে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডের ত্রিদেশীয় সিরিজটি অনেক বেশি গুরুত্ব বহন করছে বাংলাদেশের কাছে। দেশ ছাড়ার আগে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাশরাফির বিন মর্তুজার বক্তব্য সেই প্রমাণই দেয়। তিনি বলেন, ‘আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ এবং চ্যালেঞ্জিং। প্রত্যেকটা ম্যাচ আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। যদি এখান থেকে জিতে বিশ্বকাপে যেতে পারি তাহলে ভালো হবে।’

ত্রিদেশীয় সিরিজই বিশ্বকাপের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত হবার প্লাটফর্ম বলেও জানান মাশরাফি, ‘বিশ্বকাপে নয়টা ম্যাচ খেলতে হবে আমাদের। নয়টা ম্যাচে কঠিন পরিস্থিতি আসবে। সেগুলা মোকাবেলা করার মানসিকতা খুব বেশি জরুরি। উত্থান পতন থাকবে, কিন্তু পরের ম্যাচে যাতে ঘুড়ে দাঁড়াতে পারি, সে ধরনের মানসিকতা খুব জরুরি। আমার মনে হয়, আয়ারল্যান্ড থেকেই সেটা আমাদের অনুশীলন করতে হবে। যাতে এমন ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য আমরা বিশ্বকাপে প্রস্তুত থাকি।

এছাড়া বিশ্বকাপের আগে নিজেদের ভুল, পরিকল্পনা, টেকনিকগুলো সাজিয়ে নেয়ার ভালো প্লাটফর্ম এই সিরিজ। এই সিরিজ দিয়ে ইংলিশ কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিতেও চেস্টা করবে বাংলাদেশ। কিন্তু প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে টাইগাররা। হোক-না প্রস্তুতিমূলক, কিন্তু আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের কাছে হার চোখে পড়ার মতই ছিলো। গতরাতে ডাবলিনের দ্য ভিনইয়ার্ড মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে আয়ারল্যান্ড ‘এ’দলের কাছে ৮৮ রানে হেরে গেছে সাকিবের নেতৃত্বাধীন দলটি।

টস ভাগ্যে হেরে ফিল্ডিং-এ নামে বাংলাদেশ। শুরুটা ভালো না হলেও তৃতীয় উইকেটে ১২৪ রানের জুটি গড়েন জেমস ম্যাককলাম ও সিমি সিং। ম্যাককোলাম সেঞ্চুরির স্বাদ নিলেও নাভার্স নাইন্টিতে থামেন সিমি। ১০৯ বলে ১৫টি চার ও ১টি ছক্কা তুলে ১০২ রান করেন ম্যাককলাম। ৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ৯৫ বলে ৯১ রান করেন সিমি। এতে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ৩০৭ রান করে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দল। বাংলাদেশের তাসকিন আহমেদ ১০ ওভারে ৬৬ রানে ৩ উইকেট নেন। ৯ ওভারে ৬৩ রান খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন রুবেল।

জয়ের জন্য ৩০৮ রানের লক্ষ্যে ভালো শুরু করে বাংলাদেশ। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস ৫৬ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু দলীয় ৫৬ রানেই ফিরে যান দুই ওপেনার। তামিম ২১ ও লিটন ২৬ রান করেন।

দুই ওপেনারের ভালো শুরু পরবর্তীতে ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশের পরের দিকের ব্যাটসম্যানরা। তিন নম্বরে নেমে লড়াই করেছিলেন সাকিব। কিন্তু যোগ্য সঙ্গীর অভাবে বেশি দূর যেতে পারেননি সাকিব। ৭টি চার ও ১টি ছক্কায় ৪৩ বলে ৫৪ রানে থামেন সাকিব। এরপর আর কোন ব্যাটসম্যান বড় ইনিংস খেলতে না পারলে ৪২ দশমিক ৪ ওভারে ২১৯ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ফলে হার দিয়ে আয়ারল্যান্ড সফর শুরু করতে হলো টাইগারদের।

হারকে সঙ্গী করে মূল লড়াইয়ে জয়ের ধারায় ফিরতে চায় বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। এটি বলার অপেক্ষা রাখে না। কারণ ইতোমধ্যে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডকে ধরাশায়ী করেছে টাইগাররা। দুই ওপেনার জন ক্যাম্পবেল ও শাই হোপের রেকর্ড ওপেনিং জুটি ও দু’জনের জোড়া সেঞ্চুরিতে ১৯৬ রানের বড় জয় পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ক্যাম্পবেল ১৭৯ ও হোপ ১৭০ রান করেন। এতে ৩ উইকেটে ৩৮১ রানের সংগ্রহ পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে ১৮৫ রানেই গুটিয়ে যায় আয়ারল্যান্ড। তাই দুর্দান্ত জয়ে সিরিজ শুরু করে বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে প্রস্তুত ওয়েস্ট ইন্ডিজ।