• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৭ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

রাত ২:৩৬

জাহালমের মামলায় সমন্বয়হীনতা ছিল


নিজস্ব প্রতিবেদক : ভুল আসামি হয়ে ৩৩ মামলায় জেল খাটা জাহালমের বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক), আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটরসহ (পিপি) সব পক্ষের মধ্যে সমন্বয়হীনতা ছিল। দুদকের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে এ কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এমকামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে জাহালমের বিষয়ে ২৩ পৃষ্ঠার এই প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

জাহালমের ঘটনায় দুদকের দায় আছে কি না, তা নির্ণয় করে গঠিত কমিটিকে এদিন আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ গত ২৭ জুন দিয়েছিলেন আদালত।

প্রসঙ্গত, একটি জাতীয় দৈনিকে ‘৩৩ মামলায় ‘ভুল আসামি জেলে’, ‘স্যার, আমি জাহালম, সালেক না…’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুরের ডুমুরিয়া গ্রামের জাহালম ‘ভুল আসামি’ হয়ে বিনা দোষে তিন বছর জেল খাটার ঘটনায় প্রকাশিত ওই প্রতিবেদন আদালতের নজরে আনেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অমিত দাসগুপ্ত।

ওই প্রতিবেদনটি আদালতে উপস্থাপনের পর স্বপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ আদেশে দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ৩৩ মামলার মধ্যে মোট ২৬ টিতে ‘ভুল’ আসামি হয়ে জেল খাটার অভিযোগের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে দুদক চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি ও মামলার বাদীসহ চারজনের ব্যাখ্যা শোনেন আদালত। এরপর জাহালমকে ২৬ মামলায় জামিন দেন হাইকোর্ট।