ঢাকা শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইং | ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৫ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

সন্ধ্যা ৬:০৬
বিশেষ প্রতিবেদন

চিড়িয়াখানায় একসাথে ফুটলো অজগরের ২৬টি বাচ্চা

দেশে প্রথমবারের মতো চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় নিজস্ব প্রযুক্তিতে উদ্ভাবিত ইনকিউবেটরে অজগরের ২৬টি বাচ্চা ফোটানো হয়েছে।

দুই মাস আগে চিড়িয়াখানার একটি অজগর ৩৫টি ডিম পাড়ে। প্রথমে ডিমগুলো মায়ের কাছে ছিল। কিন্ত অত্যধিক গরম, ঝড় বৃষ্টিতে ডিমগুলো একে একে নষ্ট হতে দেখে হাতে তৈরি ইনকিউবেটরে তুলে আনেন চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর ডা. শাহাদাত হোসেন শুভ।

সঠিক তাপমাত্রায় পরিচর্যার পর গত বুধবার অজগরের ডিম ফুটে বাচ্চা বেরোতে থাকে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ডিম থেকে বেরোয় ২৬টি বাচ্চা।

ডা. শাহাদাত বলেন, এ উদ্যোগ অজগর সংরক্ষণে মাইলফলক হয়ে থাকবে। দেশে হয়তো এবারই প্রথম অজগরের ডিম থেকে কৃত্রিম উপায়ে আমরা বাচ্চা ফোটাতে সক্ষম হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ছানাগুলো ইনকিউবিটরে রাখা হবে। ১৫ দিন পর এরা চামড়া বদল করবে। ধীরে ধীরে এদের খাবার দেওয়া হবে। তিন মাস পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। পরে সাপের বাচ্চাগুলোকে প্রাকৃতিক বন বা অভয়ারণ্যে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বর্তমানে ২০টি বড় অজগর এবং দুর্লভ সাদা বাঘ, জেব্রা, সিংহ, হরিণ, ভালুক, বানর, কুমিরসহ অর্ধশতাধিক প্রজাতির পশুপাখি রয়েছে।