• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৭ই এপ্রিল, ২০২০ ইং | ২৪শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৩ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

রাত ৮:০৫

করোনা : শিবচরে দোকান ভাড়া না নেয়ার ঘোষণা দোকান মালিকের


শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি : করোনা সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার চারটি এলাকাকে পুরোপুরি ভাবে অবরুদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও পুরো উপজেলায় জনসমাগম এড়াতে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাজারের দোকানপাট ও গনপরিবহন।

শুধুমাত্র নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও ওষুধের দোকান ছাড়া সকল দোকান বন্ধ রয়েছে উপজেলায়। এদিকে দোকানপাট বন্ধ রাখায় বিপাকে পরেছে নিম্ম আয়ের মানুষেরা। বিষয়টির কথা চিন্তা করে শিবচরের উৎরাইল নয়াবাজারের এক ঘর মালিক তার দোকানঘরের চলতি মাসের ভাড়া না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সরকারি চাকুরীজীবি ও শিবচর ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আশ্রয় এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সহিদুজ্জামান সোহেল উপজেলার উৎরাইল নয়াবাজারে তার মার্কেটের চলতি মাসের ভাড়া না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

বাজারে তার দশটি দোকান ঘর ও তিনটি বসবাসের ঘর রয়েছে। দোকানগুলোর মধ্যে মুচির দোকান, চায়ের দোকান, সেলুনসহ নিম্ম আয়ের মানুষ ব্যবসায় করছে। এবং বসবাসের ৩ টি ঘরে এলাকার নিম্ন আয়ের পরিবার ভাড়া থাকেন। করোনা মোকাবিলায় বাজারের এসকল দোকানিরা তাদের দোকান বন্ধ রাখছে। রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়া এসকল দোকানিদের চলতি মাসের ভাড়া না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

দোকানিরা জানান, মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সকালে ফোন দিয়ে প্রত্যেক ভাড়াটিয়ার কাছে ভাড়া না নেয়ার সংবাদ পৌছে দেন তিনি। এছাড়াও পরিস্থিতি বিবেচনায় আগামী মাসগুলোতেও ভাড়া মওকুফ করতে পারেন বলে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

মুঠোফোনে দোকান মালিক সহিদুজ্জামান সোহেল বলেন,’এই পরিস্থিতিতে সকলকেই নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে। শিবচর বেশ ঝুঁকিতে রয়েছে। বাজারের সকল দোকান বন্ধ রাখতে হচ্ছে। নিম্ন আয়ের এই দোকানিদের কষ্ট হবে। আমার সাধ্যমত আমি এগিয়ে এসেছি। আমার যে দোকানঘর রয়েছে তার ভাড়াটিয়াদের আমি চলতি মাসের ভাড়া ফ্রি করে দিয়েছি। পরিস্থিতি বিবেচনায় আগামী মাসগুলোর ভাড়াও মাফ করে দেবো।’