• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৩রা জুলাই, ২০২০ ইং | ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

সন্ধ্যা ৭:২৮

করোনায় কাঁপছে দ. কোরিয়া


প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস এবার ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এই ভাইরাসে আরও দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৭ জনে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনায় দেশটিতে নতুন করে আরও ১৬১ জন আক্রান্ত হয়েছে। এতে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৬৩ জনে পৌছাল।

দেশটির দেগু এবং চোংডো এই দুই শহরকে ভাইরাস ছড়ানোর সূত্র হিসাবে দেখা হচ্ছে। এবং ঐ অঞ্চলের শিনচিওঞ্জি নামে ক্ষুদ্র একটি খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের দিকে সন্দেহের তীর গিয়ে পড়েছে।

বলা হচ্ছে, দেগু এবং চোংডোতে এই ধর্মীয় গোষ্ঠীর কয়েকশ সদস্য ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গের কথা জানানোর পরই তাদের অনেকের শরীরেই প্রথম করোনাভাইরাস পাওয়া যায়।

দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ এবং প্রতিরোধ কেন্দ্র জানিয়েছে, নতুন করে আক্রান্ত ১২৯ জনের বেশিরভাগই দেগু অঞ্চলের।

খবরে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের আতঙ্কে দেশটির অনেকে শহর ফাঁকা হয়ে গেছে। রাস্তাঘাটে কেউ নেই, একদমই ফাঁকা। শিশুরা নেই, বয়স্ক লোকদেরও কাউকেই রাস্তাঘাটে দেখা যাচ্ছে না বলে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে। এছাড়া অনেকেই অন্তত এক মাসের খাবার মজুদ করে রাখছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ‘রেড এলার্ট’ জারি করেছে।

সেইসঙ্গে দেশটির সকল কিন্ডারগার্টেন এবং স্কুলের ছুটি এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। এবং চীন থেকে আসা ব্যাক্তিদের দু’সপ্তাহ কঠোর পর্যবেক্ষণে রাখার পরিকল্পনা করেছে।