• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ২:৪১

কবি হেলাল হাফিজ হাসপাতালে


অনলাইন ডেস্ক: গুরুতর অসুস্থ হয়ে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন জনপ্রিয় কবি হেলাল হাফিজ। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টায় তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ল্যাবএইড হাসপাতাল সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম ও ল্যাবএইড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. শামীম আহমেদের তত্ত্বাবধানে হেলাল হাফিজকে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে চোখ, কিডনি জটিলতাসহ নানা শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন। সম্প্রতি তার জ্বর হয়। এরপর অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

১৯৪৮ সালের ৭ অক্টোবর নেত্রকোনায় জন্ম নেন প্রতিভাবান কবি হেলাল হাফিজ। তার বাবা খোরশেদ আলী তালুকদার আর মা কোকিলা বেগম। ১৯৬৫ সালে নেত্রকোনা থেকে এসএসসি এবং ১৯৬৭ সালে এইচএসসি পাস করে ওই বছরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে ভর্তি হন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবস্থায় ১৯৭২ সালে তিনি তৎকালীন জাতীয় সংবাদপত্র দৈনিক পূর্বদেশে সাংবাদিকতা শুরু করেন। ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত তিনি ছিলেন দৈনিক পূর্বদেশের সাহিত্য সম্পাদক, ১৯৭৬ সালের শেষ দিকে তিনি দৈনিক দেশ পত্রিকার সাহিত্য সম্পাদক পদে যোগদান করেন। সর্বশেষ তিনি দৈনিক যুগান্তরে কর্মরত ছিলেন।

‘এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়, এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ -কবিতাপ্রেমী ও সাধারণ পাঠকের মুখে বহুল উচ্চারিত এই পঙক্তিটির রচয়িতা হেলাল হাফিজ। তার কবিতা সংকলন ‘যে জলে আগুন জ্বলে’ ১৯৮৬ সালে প্রকাশিত হওয়ার পর অসংখ্য সংস্করণ হয়েছে। ২৬ বছর পর ২০১২ সালে আসে তার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘কবিতা একাত্তর’। তার অন্যতম জনপ্রিয় কবিতা ‘নিষিদ্ধ সম্পাদকীয়’।

২০১৩ সালে তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হন।