• ঢাকা
  • সোমবার, ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৪ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ১২:২৫

এসেনসিয়াল ড্রাগসে দুদকের অভিযান


নতুন কাগজ ডেস্ক: রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি এসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেডে (ইডিসিএল) কর্মচারী নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এ অভিযান চালানো হয়। দুদক প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক নারগিস আক্তার এবং মইনুল হাসান রওশনীর সমন্বয়ে গঠিত টিম এ অভিযান চালায়।
দুদক টিম জানতে পারে, ইডিসিএলে অস্থায়ী কর্মচারী নিয়োগের বিধিমালা না থাকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই অস্থায়ী কর্মচারী নিয়োগ দিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। এভাবে গত দুই বছরে ৮১ জনকে মাস্টাররোলে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে এ অভিযান চালানো হয়।
আরেকটি অভিযোগ পেয়ে দুদক টিম ইডিসিএলের গাড়িগুলোর লগ বই যাচাই করে প্রমাণ পায় যে, সিবিএ সভাপতি সামসুদ্দিন কাহার এবং সাধারণ সম্পাদক নুর আলম মোল্লা দীর্ঘদিন ধরে সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে আসছেন, যা বাংলাদেশ শ্রম বিধিমালা ২০১৫-এর বিধি ২০২/৩ এর লঙ্ঘন। এতে বলা হয়েছে, কোনো ট্রেড ইউনিয়ন, ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশন বা কনফেডারেশন, যৌথ দরকষাকষি প্রতিনিধি, অংশগ্রহণকারী কমিটি বা তার কোনো সদস্য কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো যানবাহন, আসবাবপত্র অথবা আর্থিক কোনো সুবিধা নিতে পারবে না।
ইডিসিএল ছাড়াও আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েছে দুদক। রাজশাহীতে সরকারি খাদ্য গুদামের চাল একটি বাইরের দোকানে বিক্রির অভিযোগ পেয়ে অভিযান চালায় দুদক। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে একজন অভিযোগকারী অভিযোগ করেন, তিনি সন্তান নিয়ে স্কুলে যাওয়ার পথে প্রায়ই দেখতে পান খাদ্য অধিদফতরের সিল সম্বলিত চালের বস্তা একটি প্রতিষ্ঠানে নামানো হয়। ওই চালের বস্তাগুলো সরকারি গুদাম থেকে চুরি করে বাইরের দোকানে বিক্রি করা হয় সন্দেহে দুদক হটলাইনে (১০৬) অভিযোগ জানান তিনি। অভিযোগ পেয়ে সমন্বিত জেলা কার্যালয় রাজশাহীর সহকারী পরিচালক মো. আল-আমিনের নেতৃত্বে একটি এনফোর্সমেন্ট টিম অভিযান চালায়।
অভিযানে খাদ্য অধিদফতরের সিল সম্বলিত ১৪ মেট্রিক টনের ১৩৮৬টি চালের বস্তা জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত এবং পুলিশের সার্কেল এসপির উপস্থিতিতে জব্দ করা হয়।
যশোরের জেলা সমাজসেবা অফিস ট্রেনিংয়ের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। সমন্বিত জেলা কার্যালয় যশোর থেকে পরিচালিত এ অভিযানে প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। টিম প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র সংগ্রহ করে।
জামালপুরের সরিষাবাড়ী সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অসাধু কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দলিল রেজিস্ট্রি বাবদ অবৈধ অর্থ গ্রহণের অভিযোগে এবং বগুড়ার কাহালু ইউনিয়ন পরিষদের টিআর প্রকল্পের বরাদ্দকৃত টাকা আত্মসাতের অভিযোগে যথাক্রমে সমন্বিত জেলা কার্যালয় টাঙ্গাইল এবং সমন্বিত জেলা কার্যালয় বগুড়া থেকে দুটি পৃথক এনফোর্সমেন্ট অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

নতুন কাগজ/আরকে