• ঢাকা
  • সোমবার, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং | ২২শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ২:০৫

একটি ভালো উদ্যোগ কেন বিতর্কিত হলো?


মো:সাহেদ: রাজাকারের তালিকাটি আরো অনেক আগে করা উচিত ছিল। শেষ পর্যন্ত তা শুরু হয়েছে। আর সে কারণেই তালিকা প্রকাশকে স্বাগত জানাতে হয়। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য  কিছু বাহিনী তৈরি করা হয়েছিল। রাজাকার, আলবদর, আলশামসের সদস্যরা মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের পক্ষে যুদ্ধ করেছে। তৈরি করা হয়েছিল শান্তি কমিটি। দেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারপ্রক্রিয়া চলমান।  দেশের মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা হয়েছে; কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারী ও পাকিস্তানি বাহিনীকে সহায়তাকারী সশস্ত্র বাহিনীগুলোর সদস্যদের তালিকা ছিল না। একাত্তরে স্বাধীনতাবিরোধীদের সামনের কাতারে থাকা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের সমাজের আনাচেকানাচে ঘাপটি মেরে থাকা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবি ওঠে।

 বিজয় দিবসের আগের দিন সরকারের হাতে ১০ হাজার ৭৮৯ জন স্বাধীনতাবিরোধীর প্রথম তালিকা প্রকাশ করেছে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। এবারই প্রথম একটি তালিকা করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে পূর্ণাঙ্গ তালিকা করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। কিন্তু প্রকাশিত প্রথম তালিকাটি নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। তালিকায় এমন কিছু নাম যুক্ত হয়েছে, যাঁরা একাত্তরে ছিলেন সশস্ত্র মুক্তিযোদ্ধা কিংবা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক। এসেছে শহীদ পরিবারের সদস্যদের নামও। আবার কোনো কোনো এলাকার চিহ্নিত রাজাকার বা মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে সশস্ত্র যুদ্ধে লিপ্ত হওয়া মানুষটির নাম এই তালিকায় আসেনি। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, আংশিক যে তালিকাটি প্রকাশ করা হয়েছে, সেটা কি নির্ভুলভাবে প্রকাশ করা সম্ভব ছিল না? নাকি ইচ্ছা করেই কেউ ভেতর থেকে বিতর্কিত করা হলো ? তা না হলে এই তালিকায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চিফ প্রসিকিউটর ভাষাসংগ্রামী ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক গোলাম আরিফ টিপুসহ রাজশাহীর মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক-মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের পাঁচজনের নাম আসে কী করে! বরিশালের গেজেটভুক্ত ও ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর নামও তো স্থান পেয়েছে রাজাকারের তালিকায়। সরকারের এ রকম একটি ভালো উদ্যোগ এভাবে বিতর্কিত করা হলো কেন? বিচারের আওতায় আসা প্রায় ৩৭ হাজার ঘাতক-দালালের নাম ওই সময়ের গেজেটে আছে। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরেই গেজেটটি সংরক্ষিত আছে। সুতরাং একটি নির্ভুল তালিকা প্রকাশ করা অসম্ভব নয়।