• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৮ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

সকাল ৯:০২

‘ঈশ্বরের হাত’ উপর পর্যটকের ভিড়


অনলাইন ডেস্ক : ভিয়েতনাম হচ্ছে ইন্দো চীন উপদ্বীপের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত একটি রাষ্ট্র। দেশটির উত্তরে গণচীন, পশ্চিমে লাওস ও কম্বোডিয়া, দক্ষিণ ও পূর্বে দক্ষিণ চীন সাগর অবস্থিত। দেশটির পাহাড়ি শহর দানাং। সেখানে নির্মিত হয়েছিল দুটি ঈশ্বরের হাত। সেই হাতের ওপর রয়েছে সোনালি সেতু।

দানাং শহরের গাছপালা আর পাথুরে পাহাড় ভেদ করে বেরিয়ে এসেছে কংক্রিটের তৈরি প্রকাণ্ড হাত দুটি। স্থানীয়রা যাকে ‘ঈশ্বরের হাত’ বলে। সেই হাতের ওপর রয়েছে ধনুকের মতো বাঁকানো সোনালি রঙের সেতু। আর সেই সেতুতে এখন দর্শক-পর্যটকের ভিড়। জানা যায়, ভিয়েতনামের এ ‘গোল্ডেন ব্রিজে’র ছবি এখন নেটদুনিয়ায় ভাইরাল। সেতুটি ১৯১৯ সালে নির্মাণ করা হয়। দানাং শহরের ‘বা না হিলস’র উপরে ফ্রান্সের এক নির্মাতা সংস্থা এ অভিনব সেতুটি তৈরি করে। পাহাড়ি রাস্তার মতো সেতুটিও এঁকেবেঁকে গেছে পাহাড়ের উপর দিয়ে। মাঝে রয়েছে দুটি পাথরের হাত। ঘন জঙ্গল ও পাহাড়ের উপরে প্রায় ৪৯০ ফুট উঁচুতে তৈরি করা হয়েছে সেতুটি। ওই সেতু থেকে দানাং শহরটি দেখা যায়। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে উঁচু এবং দৃষ্টিনন্দন বিশাল আকারের হাতের আদলে তৈরি হওয়ায় দর্শকদের আগ্রহের কেন্দ্রে চলে এসেছে সোনালি সেতু। ওয়েডিং ফটোগ্রাফি বা ইনস্টাগ্রাম ছবির জন্য সেখানে ছুটে যান অনেকেই। গত বছর সোনালি সেতুর আকর্ষণে ভিয়েতনামে গিয়েছিলেন ১৩ লাখ বিদেশি পর্যটক।

যারা বেশিরভাগই চীনের নাগরিক। ২০১৭ সালে থাই পর্যটকের সংখ্যা ছিল ৩৫ লাখের মতো। এবার পর্যটকদের জন্য সুখবরও এসেছে। গোল্ডেন ব্রিজের পর ভিয়েতনামে শুরু হয়েছে সিলভার ব্রিজের কাজ। ‘হ্যান্ড অব গডে’র পর এবার ‘হেয়ার অব গড’ সেতু নির্মিত হবে। হাতের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই তৈরি হবে চুল। তার মধ্যদিয়ে তৈরি হবে এ রুপালি সেতু।

ন/ক/র