• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৭ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

রাত ২:০৮

ঈদযাত্রা : ঝুঁকিপূর্ণ রেলপথ


মো : সাহেদ : আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা।মানুষ ঈদ করার প্রস্তুতি নিয়েছে। অনেকে আগেভাগে রাজধানী ছাড়তে শুরুও করেছে। ইতোমধ্যে বাসের টিকিট শেষ । ট্রেনের টিকিট নিয়েও চলছে কাড়াকাড়ি। ঈদের সময় ঘরমুখী মানুষ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ট্রেনযাত্রাকে বেছে নেন। কেননা তুলনামূলকভাবে ট্রেনযাত্রাই অধিক নিরাপদ, সাশ্রয়ী ও আরামদায়ক।

তবে এই সময় ট্রেনে   অস্বাভাবিক ভিড় থাকে।গণমাধ্যম সুত্রে জানা গেছে, এবারের বন্যায় সারাদেশে ১৫০ কিলোমিটার রেলপথ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ইহার মধ্যে ওয়াশ আউট হয়ে গেছে প্রায় ৩৩ কিলোমিটার রেলপথ।  আর ৫০০ কিলোমিটার রেলপথ ঝূঁকিপূর্ণ রয়েছে। বিভিন্ন স্থানে আছে ঝুঁকিপূর্ণ রেলসেতু।এ সব পথে ট্রেন চলে ধীরগতিতে। ঈদের সময় সড়কপথের মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হয়। এইসব ঝুঁকিপূর্ণ রেলপথও দ্রুত সংস্কারের পদক্ষেপ গ্রহণ করা দরকার।

আমাদের রেলপথগুলিতে নানা মাত্রার ঝুঁকি ও বিপদ রয়েছে। এতে যে কোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। এবারের বন্যায় রেলপথ সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে গাইবান্ধা জেলায়। এ ছাড়া জামালপুর জেলায় পাঁচ ও কুড়িগ্রাম জেলায় অর্ধকিলোমিটার রেলপথ ভেঙ্গে গেছে। এইসব ভাঙা রেলপথ  দ্রুত মেরামত করা  উচিত। বন্যায় চট্টগ্রাম-দোহাজারী রেলপথও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বগুড়া, লালমনিরহাট, রংপুর, দিনাজপুর প্রভৃতি স্থানেও ক্ষতিগ্রস্ত রেলপথের আছে।

আমরা মনে করি ঝুঁকিপূর্ণ ও ক্ষতিগ্রস্ত রেলপথগুলি অবিলম্বে মেরামত করা উচিত।তা না হলে ঈদযাত্রায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা থেকে যাবে।