• ঢাকা
  • শনিবার, ১৬ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৮ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সকাল ৭:২৭

ইবিতে শাপলা ফোরামের নির্বাচন ২৯ জুন


ইবি সংবাদদাতা : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও বাঙালী জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষকদের সংগঠন শাপলা ফোরামের ২০১৯ সালের কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন ২৯ জুন (শনিবার) অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মমতাজ ভবনের শিক্ষক ক্লাবে ওইদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। এবছর শাপলা ফোরাম নির্বাচনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৩৩জন শিক্ষক তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন বলে নির্বাচন কমিশন নিশ্চত করেছে।

জানা যায়, এবছর কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন ২০১৯ এর আহব্বায়ক ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুল মুঈদ এবং সদস্য হিসেবে আইসিই বিভাগের অধ্যাপাক তপন কুমার জোদ্দার ও আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাজ্জাদুর রহমান টিটু দায়িত্ব পালন করবেন।

গত ২২ ও ২৩ জুন নির্বাচনে প্রার্থী হতে আগ্রহী শিক্ষকদের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমা পর ২৪ জুন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে। নির্বাচনে ২৩৩জন শিক্ষকদের প্রত্যক্ষ ভোটে ১৫ জন প্রতিনিধি নির্বাচিত হবেন। পরবর্তীতে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের মধ্যে থেকে আলোচনা সাপেক্ষে সভাপতি, সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষসহ ১৫টি পদ বন্টন করে কমিটি ঘোষণা করা হবে।

শাপলা ফোরাম কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন-২০১৯ এর আহ্বায়ক অধ্যাপক আব্দুল মুঈদ বলেন, যাচাই বাছাই শেষে আমরা গতকাল ২৯জন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছি। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৯ জুন সকালে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে ২৯ জন প্রার্থীর চূড়ান্ত তালিকায় প্রথম ১৪ জন উপাচার্যপন্থী এবং পরের ১৫ জন উপ-উপাচার্যপন্থী হয়ে নির্বাচনে প্রর্থীতা চূড়ান্ত হয়েছে বলে শিক্ষকরা জানিয়েছেন। ইতোমধ্যে উভয় গ্রুপের শিক্ষকেরা পৃথক ভাবে এবং প্যানেলে প্রচার-প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন। এবছরের শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে শাপলা ফোরামের সাবেক ১৫ সদস্যের পূর্ণ প্যানেলে জয়ী হয়। সমিতিতে অধিকাংশ পদ উপ-উপাচার্যপন্থী শিক্ষকদের দখলে থাকায় উপাচার্যপন্থীদের অবস্থান খুব একটা ভাল অবস্থানে নেই দাবী বিশ^বিদ্যালয়ের জেষ্ঠ্য শিক্ষকদের। তাই শাপলা ফোরামের নির্বাচনে তাদের অবন্থান তৈরী করতে রয়েছে বিশেষ নজর।

এদিকে উপ-উপাচার্যপন্থী শিক্ষকরা তাদের অবন্থান ধরে রাখতে নির্বাচনী মাঠে জয় পেতে কঠোর অবস্থানে রয়েছেন।