• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৪শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

বিকাল ৪:৩৫

ইউটিউবে এবার মিমি-শ্রীলেখা


বিনোদন ডেস্ক: ডিজিটাল যুগে কোনো তারকাই পিছিয়ে থাকতে চান না। ভারত তো আরও এগিয়ে। ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামের পরে তাদের পছন্দের তালিকায় স্থান পাচ্ছে ইউটিউব।
মিমি চক্রবর্তী সম্প্রতি লঞ্চ করলেন তার ইউটিউব চ্যানেল, ‘মিমি চক্রবর্তী ক্রিয়েশনস’। রাজ চক্রবর্তীর প্রোডাকশন হাউজেরও ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে। নতুন ইউটিউব চ্যানেল খুলেছেন শ্রীলেখা মিত্র। টলিউডে এ হাওয়া সাম্প্রতিক হলেও বলিউডে বেশ কয়েক বছর ধরেই নিজস্ব চ্যানেল লঞ্চ করেছেন তারকারা। ইউটিউবে সঙ্গীত শিল্পীরা অনেক দিন ধরেই রয়েছেন। বহু অনামী শিল্পী ইউটিউবের হয়ে খ্যাতিও পেয়েছেন।
পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ইউটিউবে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা রোজ বাড়ছে। এ বিষয়ে রাজ চক্রবর্তীর প্রোডাকশন হাউজের রাজ বলেন, ‘আমার কিছু প্রচার করার থাকলে আগে কারও ওপরে নির্ভর করতে হত। কিন্তু ইউটিউবে আমি সরাসরি ছবির গান, কনটেন্ট পোস্ট করছি। আর দর্শকের কাছে পৌঁছনোর জন্য ইউটিউবের চেয়ে বড় প্ল্যাটফর্ম নেই।’
ইউটিউবে নতুন করে যুক্ত হওয়া শ্রীলেখা মিত্র বলেছেন, ‘অভিনয় ছাড়া আমি লেখালিখি করি। এছাড়া বিভিন্ন বিষয়ে আমার মতামত রয়েছে। সেগুলো দর্শকের কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্যই ইউটিউব চ্যানেল।’ নতুন প্রতিভাদের প্রচারেও তার চ্যানেল ব্যবহার করবেন বলে জানিয়েছেন শ্রীলেখা।
মিমি এর আগে ছবিতে প্লেব্যাক করেছেন। তবে গান নিয়ে তিনি বড় কিছু করতে চান। তার চ্যানেলের প্রথম কনটেন্ট তার মিউজিক ভিডিও। মিনি বলেন, ‘আমি কতটা ফ্রি-স্পিরিটেড মানুষ, তা দর্শক আগে দেখেননি। এ চ্যানেল আমার সত্তার এক্সটেনশন। আমি যে বেড়াতে ভালোবাসি, নতুন নতুন জায়গায় গিয়ে অচেনা মানুষের সঙ্গে আলাপ করি, সেই সব আমার ফ্যানেরা এখন দেখতে পাবেন।’ তবে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডকে এখনই ইউটিউবের মাধ্যমে আনতে চাইছেন না এ সাংসদ অভিনেত্রী।

নতুন কাগজ/আরকে