• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং | ১৯শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৮ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

দুপুর ১২:২২

অভয়নগরে নির্মাণ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার


স্টাফ রিপোর্টার

অভয়নগর উপজেলার একতারপুর গ্রাম থেকে শুক্রবার সকালে রিপন শেখ(২৬) নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছে অভয়নগর থানা পুলিশ। রিপনের পিতার অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে। এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রিপনের বাড়ি উপজেলার কোটা গ্রামে। গত ৬ মাস যাবৎ উপজেলার তালতলা রেল বস্তি এলাকায় শ্বশুর বাড়িতে থাকত রিপন।

সে রাজমিস্ত্রীর সহযোগী হিসাবে কাজ করত।রিপনের বাবা শুকুর আলী এবং মাতা সেলিনা বেগম জানান, রিপন তার স্ত্রী শাহানাজ বেগমকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে থাকত। তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকত। রিপন গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়ি গিয়ে বলেছিল তার সাথে তার স্ত্রী এবং শ্বাশুড়ীর সাথে বনিবনা হচ্ছে না।এরপর ওই রাতে সে শ্বশুরবাড়িতে ফিরে আসে। তারা আরও জানায়, তাদের বৌমা রাস্তায় শ্রমিকের কাজ করত এবং সেখানকার এক মিস্ত্রির সাথে তার প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে উঠে ছিল।

এ সম্পর্কের সূত্র ধরে তাকে খুন করা হতে পারে। রিপনের স্ত্রী শাহনাজ বেগম বলেন,‘ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২ টায় সে বাড়ি আসে এবং ভোর রাতে সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। সকালে শুনি যে সে ট্রেনের ধাক্কায় মারা গেছে।’ এ ব্যাপারে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ তাজুল ইসলাম স্থানীয় এক মহিলা কাউন্সিলরের বরাত দিয়ে বলেন, রিপন শেখ ট্রেনের ধাক্কায় নিহত হয়। রেল পুলিশ ঝামেলা করবে বলে স্থানীয়রা তার লাশ বাড়ির কাছে রেখে দিয়েছে। তার হাত পা ভেঙ্গে গেছে ও মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়না তদন্তের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে না দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে নেওয়া হয়েছে।