Natun Kagoj

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী

স্যালভেশন আর্মির অস্ত্রবিরতি প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের

আপডেট: ১১ সেপ্টে ২০১৭ | ১১:৩৯

নতুনকাগজ প্রতিবেদক : দ্য আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা) ঘোষিত এক মাসের অস্ত্রবিরতি প্রত্যাখ্যান করেছে মিয়ানমার সরকার। দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে আরসাকে ‘সন্ত্রাসী’ সংগঠন অভিহিত করে বলা হয়েছে, তাদের সঙ্গে সরকার কোনো ধরনের সমঝোতায় যাবে না। এর আগে রোববার অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দিয়ে আরসা জানায়, মানবিক সংকটের কথা বিবেচনা করে তারা অস্ত্রবিরতিতে যেতে চায়। এক বিবৃতিতে আরসা মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে অস্ত্র ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানায়। খবর বিবিসির।
বিবিসির খবরে জানা যায়, এর প্রতিক্রিয়ায় মিয়ানমার সরকারের মুখপাত্র জ হাতে রোববার এক টুইটে বলেন, ‘সন্ত্রাসীদের’ সঙ্গে সমঝোতা করার কোনো নীতি তাদের নেই।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে কয়েকটি পুলিশ ও সেনাচৌকিতে হামলার সূত্র ধরে রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর নীপিড়ন শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনী ও পুলিশ। আরসা গত ২৫ আগস্ট ওই হামলা চালায় বলে অভিযোগ মিয়ানমার সরকারের।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইনের ৩০টি পুলিশ ও সেনাচৌকিতে হামলা হয়। এরপর সেখানে সেনা অভিযান শুরু হলে প্রাণভয়ে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশের পথে রোহিঙ্গারা আসতে থাকেন। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা সীমান্তের ওপারে সেনাবাহিনীর হত্যা, ধর্ষণ, ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও পরিকল্পিত দমন অভিযানের বিবরণ দেয়। গত দুই সপ্তাহে বাংলাদেশে প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা ঢুকেছে বলে জানিয়েছে ইউএনএইচসিআর।


নতুন কাগজ | সাজেদা হক

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

Loading Facebook Comments ...
 বিজ্ঞাপন