স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা ফটিকছড়িতে

9

নতুন কাগজ ডেস্ক : স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায়। রোববার থেকে টানা বর্ষণে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত ফটিকছড়ি উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন পুরোপুরি বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছে। পানিবন্দি হয়েছে লক্ষাধিক মানুষ। গৃহহারা হওয়ার উপক্রম হয়েছে কয়েকশত পরিবারের।

খবর নিয়ে জানা যায়, উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভা, ফটিকছড়ি পৌরসভা, সুয়াবিল, ধুরং, সুন্দরপুর, মন্দাকিনি, ধর্মপুর, জাফতনগর, নানুপুর, বক্তপুর, রোসাংগরি, লেলাং, পাইন্দং, হারুয়ালছড়িসহ প্রায় প্রতিটি ইউনিয়ন বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। ফটিকছড়ি উপজেলা সদর, আদলত ভবন, মাইজভান্ডার দরবার শরিফ প্রায় গলা সমান পানিতে ডুবে গেছে। এই অবস্থায় লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক কুমার রায় ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির কথা স্বীকার করে বলেন, পুরো ফটিকছড়ি উপজেলা এখন রীতিমত বন্যার পানিতে ভাসছে। লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে অসহায় অবস্থার মধ্যে রয়েছে। উপজেলা প্রশাসন থেকে সাধ্যমতো সব কিছু করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে বন্যার পানির জন্য আমরাও অসহায় হয়ে পড়েছি। ফটিকছড়ি উপজেলার সব সড়ক যোগাযোগব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে।

স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা যায়, ফটিকছড়ি উপজেলায় সোমবার রাত থেকে ভয়াবহ গতিতে পানি বৃদ্ধি পেতে থাকে। মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত উপজেলার অধিকাংশ এলাকা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে গেছে। পানি এখনো ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।

MHKhan(007)-12/06 NK-18