Natun Kagoj

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী

স্ক্র্যাম্বল এগ

আপডেট: ২৯ মার্চ ২০১৭ | ১০:৫৫


কাগজ ডেস্কঃ স্বাভাবিক ভাবেই শিশুদের পেট বড়দের পেটের আকৃতি থেকে অনেক ছোট হয়। তাই সবসময় চেষ্টা করতে হয় শিশুরা যা ই খাবে তা যেন হয় পুষ্টিকর এবং একই সাথে মজাদার।

অনেক শিশুই দুধ, ডিম বা যেকোনো একটি খেতে চায় না। তাই তাদেরকে যদি দুধ আর ডিম মিলিয়ে একটা খাবার দেয়া যায় তাহলে তাদের সারাদিনের দুধ আর ডিম খাওয়া নিয়ে মায়েদের ভাবনা থাকবেনা। আর সেই খাবারটি হচ্ছে স্ক্র্যাম্বল এগ। তবে বলে রাখা ভাল এটা শুধু ছোটদের খাবার না, বড়রাও খেতে পারবে গোলমরিচ ছিটিয়ে পাউরুটির সাথে।

এখানে ২ বছরের শিশুর জন্য পরিমান দেয়া হলো। শিশু ছোট বা বড় হলে দুধের পরিমানে কম বা বেশি করে নিতে হবে। এটা নয়, দশ মাসের শিশু থেকে শুরু করে বড়রা সবাই খেতে পারে।
উপকরণ:

ডিম: ১টি

গুড়াদুধ: ৫ চামচ (দুধের ভেতরে যে চামচ থাকে অথবা ৪ টেবিল চামচ)

পানি: পরিমান মত

চিনি: ১ চা চামচ (না দিলেই ভালো)

তেল: ১ টেবিল চামচ

প্রণালী:

বাটিতে গুড়াদুধ নিয়ে তাতে সামান্য কিছুটা পানি নিয়ে গুলাতে হবে, খুব বেশি পানি দেয়া যাবে না। দুধটা ঘন করে গুলাতে যতটুকু পানি লাগে। তারপর তাতে ডিমটা ভেঙ্গে ভালো করে ফেটে মিশিয়ে নিয়ে চিনিটাও মিশাতে হবে। তবে শিশু যদি চিনি না দিলে খায় তাহলে চিনি ছাড়াই দিন।

তারপর ফ্রাই প্যানে তেল দিয়ে তাতে মিশ্রণটা ঢেলে দিয়ে তারপর চুলায় দিন। অল্প আঁচে ঘাঁটুন। যখন জমে যাবে নামিয়ে নিন। ঠাণ্ডা করে কুসুম গরম অবস্থায় শিশুকে খাওয়ান। এটা হতে পারে শিশুর সকালের নাস্তা। সাথে দিতে পারেন পাউরুটি আর একটু ফল।


লেখক: জনস্বাস্থ্য পুষ্টিবিদ; এক্স ডায়েটিশিয়ান,পারসোনা হেল্‌থ; খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান (স্নাতকোত্তর) (এমপিএইচ); মেলাক্কা সিটি, মালয়েশিয়া।

‘বাসার বাজার করেছেন তো? বাজার করুন চালডালে – সময় বাচাঁন, খরচ বাচাঁন। সেরা দামে সবকিছু মাত্র এক ঘন্টায়।’


নতুন কাগজ | রুমানা পারভিন
 বিজ্ঞাপন