সরকা‌রের পতন না ঘটা‌লে খা‌লেদার মু‌ক্তি হ‌বে না: গ‌য়েশ্বর

0
3

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আমরা যদি এই সরকারের পতন ঘটাতে না পারি তাহলে খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে না, শেখ হাসিনাও আমাদের নেত্রীকে মুক্তি দিবে না। জেলগেটে লাশ ফেরত দেবে, জীবিত মুক্তি দিবে না। আমাদেরকে নেত্রীর লাশের জন্য জেলগেটে অপেক্ষা করতে হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব তৃতীয় তলায় কন্ফারেন্স লাউঞ্জে এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও এম ইলিয়াস আলীর সন্ধানের দাবিতে এ সভার আয়োজন করা হয়। গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আমি জেল থেকে রেব হওয়ার পর অনেকেই কম কথা বলতে আমাকে পরামর্শ দিচ্ছেন। কিন্তু কী করবো, কথা না বললে তো মনের কথা মনে থেকে যায়। সেই কারণেই বলছি, শেখ হাসিনার অধীনে যদি নির্বাচনে যাই, তাহলে ২০১৪ সালের নির্বাচনে কেন গেলাম না। এখান কি জবাব দিবো নেতাকর্মী ও জনগণের কাছে।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন হবে সকল দলের অংশ গ্রহণে। বিএনপিও ওই নির্বাচনে আসবে এই কথা সকাল বিকাল বলেন ওবায়দুল কাদের। এই জন্য আমি যখন জেলে ছিলাম তখন তখন একটা গ্রুপ আমাকে ম্যানেজ করার জন্য জেলে যাবেন এমন কথাও শুনিনি। তিনি বলেন, আমাদের ঐক্য হতে হবে। সেই ঐক্য যেন মান্নান ভূইয়ার মত না হয়। খালেদা জিয়াকে আর তারেক রহমানকে বের করে দিয়ে নয়। আমরা আগামী দিনে নির্বাচনে যাব কি যাব না এটা নিয়ে শর্ত হতে পারে। কিন্তু একটা শর্ত হচ্ছে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার অধীনে ছাড়া নির্বাচনে যাব না। বিএনপির এই নেতা বলেন, আজকে নির্বাচনের কথা বলা হচ্ছে, আমাদের নেত্রীর মুক্তির দাবিকে পাশ কাটিয়ে। আমরা যদি নিরপেক্ষ সরকার ব্যবস্থা আদায় করতে পারি তাহলে আমাদের নেত্রীও মুক্তি পাবে। খালেদা জিয়াকে নিয়েই নির্বাচনে যাবো নাকি, তাকে ছাড়া যাবো সেই নির্দেশনা তিনি দিবেন।

প্রতিবাদ সভায় আরও বক্তব্য দেন-বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এনাম আহমেদ চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন জীবন, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুল, বিএনপি নেত্রী শাম্মি আক্তার,স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক নেতা আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, ছাত্রদলের সহ সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট প্রমুখ।