Natun Kagoj

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী

মেসির হ্যাটট্রিক, বার্সা জিতল ৫-০ তে

আপডেট: ১০ সেপ্টে ২০১৭ | ১৩:০০

নতুনকাগজ প্রতিবেদক : আগের ম্যাচে জোড়া গোল করা আর্জেন্টিনার স্ট্রাইকার লিওনেল মেসি এবার আরও উজ্জ্বল। তার দারুণ হ্যাটট্রিকে স্প্যানিশ লা লিগায় এসপানিওলকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা।

এরনেস্তো ভালভারদের দলের ৫-০ ব্যবধানের জয়ে অন্য গোল দুটি করেন লুইস সুয়ারেজ ও জেরার্দ পিকে।

কাম্প নউয়ে শনিবার রাতে যথারীতি শুরু থেকে এসপানিওলকে চেপে ধরে বার্সেলোনা। তবে গোলের তেমন সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না। মাঝে-মধ্যে বার্সেলোনার রক্ষণের পরীক্ষা নিচ্ছিল এসপানিওল। তাদের পাল্টা আক্রমণের ঝাপটা সামলাতে কখনও কখনও মেসিকে পর্যন্ত নেমে আসতে হয়েছে নিজেদের রক্ষণে।

অতিথি গোলরক্ষককে প্রথম বড় পরীক্ষায় ফেলেন সুয়ারেজ। চোট কাটিয়ে ফেরা তারকা স্ট্রাইকারের ১৯তম মিনিটের ফ্রি-কিক কোনোমতে ফিরিয়ে দেন পাও লোপেজ।

চলতি আসরের প্রথম দুই ম্যাচে জিতলেও ঠিক স্বরূপে দেখা যায়নি বার্সেলোনাকে। স্পেনের অন্যতম সফল দলটি এদিন ছিল অনেক বেশি উজ্জ্বল। রক্ষণে ছিল আত্মবিশ্বাসের ছাপ। আক্রমণে মেসি-সুয়ারেসরা ভীতি ছড়িয়েছেন অতিথি শিবিরে।

২৬তম মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ইভান রাকিতিচের ডিফেন্স চেরা পাস ধরে পায়ের কারিকুরিতে একজনকে ফাঁকি দিয়ে জায়গা করেন মেসি। ছুটে আসছিলেন আরও দুইজন, তারাও খুব বেশি কিছু করতে পারেননি। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের শট খুঁজে নেয় জাল। রিপ্লেতে দেখা গেছে অফ সাইডে ছিলেন মেসি।

৩০তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সুবর্ণ সুযোগ আসে রাকিতিচের সামনে। তবে খুব কাছ থেকে তার শট ফিরিয়ে দেন গোলরক্ষক। এর চার মিনিট পর নিজের দ্বিতীয় গোল পেয়ে যান মেসি।

প্রতি আক্রমণ থেকে বল পাওয়া মেসি বল বাড়াতে চেয়েছিলেন জর্দি আলবাকে। একজনের গায়ে লেগে দিক পাল্টায় বল কিন্তু আরেক জনের গায়ে লেগে পেয়ে যান স্প্যানিশ ডিফেন্ডার। তার কাটব্যাকে মেসির ডান পায়ের চতুর স্পর্শ গোলরক্ষককে বিভ্রান্ত করে জড়ায় জালে।

৪৩তম মিনিটে একটুর জন্য ব্যবধান কমাতে পারেনি এসপানিওল। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাবলো পিয়াতির শট বারে লেগে।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম সাত মিনিটে একটি করে সুযোগ পায় দুই দল। ৪৯তম মিনিটে সুয়ারেজের প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক লোপেজ। তিন মিনিট পর পিয়াতি একটুর জন্য লক্ষ্যে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি।

৫৬তম মিনিটে মেসির দারুণ পাসে ওপর দিয়ে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন সুয়ারেজ। ছয় মিনিট পর এসপানিওলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড বাপতিস্তাওয়ের বুলেট গতির শট কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান সামুয়েল উমতিতি।
আগের ম্যাচে জোড়া গোল করা মেসি ৬৭তম মিনিটে পূরণ করেন হ্যাটট্রিক। তার কাছ থেকে বল পাওয়া সুয়ারেজকে ঠেকাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন এসপানিওলের প্রায় সবাই। উরুগুয়ের স্ট্রাইকার শট না নিয়ে বল দেন আলবাকে। তার বুদ্ধিদীপ্ত পাস খুঁজে পায় অরক্ষিত মেসিকে। বাকি টুকু সহজেই সারেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক।

এবারের লিগে মেসির এটা পঞ্চম গোল। আর লা লিগার ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতার গোল হলো ৩৫৪টি।


নতুন কাগজ | সাজেদা হক

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

Loading Facebook Comments ...
 বিজ্ঞাপন