পোশাকে ফাগুনের ছটা

0
18

নতুন কাগজ ডেস্ক: ষড়ঋতুর নাগরদোলায় ফুলের সৌরভ আর রঙের পসরা নিয়ে বসন্ত আসে। বসন্তের প্রথম দিন পয়লা ফাগুন ঘিরে গত কয়েক বছর ধরে নাগরিক উন্মাদনা বেড়েই চলেছে। বিশেষ করে তরুণ প্রজন্ম দিনটি বরণের জন্য দীর্ঘ প্রস্তুতির মধ্যে থাকে। পরের দিনটিই ভালোবাসা দিবস হওয়ায় প্রস্তুতি যোগ হয় প্রিয়জনকে নিয়ে সময় কাটানোর বাড়তি প্রেরণা। আর এটা তো সবারই জানা যে, বিশেষ দিনকে জমকালো করে তুলতে প্রয়োজন বিশেষ পোশাক।

দেশীয় ফ্যাশন হাউজগুলো ফাগুনের নির্যাস আর ভালোবাসার মোটিভে ডিজাইন করা বর্ণিল পোশাকে ফেব্রুয়ারির শুরুতেই শোরুম সাজায়। বাহরি রঙ, বাহারি ডিজাইনের পোশাকে ঠাসা দেশীয় পোশাকের দোকানগুলো এখন ভালোই জমেছে বিকিকিনি।

সব বুটিকেই এখন রঙবেরঙের শাড়ি, পাঞ্জাবি, ফতুয়া, থ্রিপিস, টি-শার্ট, শার্টের ছড়াছড়ি। কোথাও কোথাও যুগলদের পোশাক। অর্থাৎ শাড়ি আর পাঞ্জাবির কম্বিনেশন। আবার কোন কোন দোকানে সালোয়ার কামিজ আর ফতুয়ার কম্বিনেশন। আর পোশাকগুলো মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার হয়েছে ব্লক, টাইডাই, স্প্রে ব্লক, চুনরি, স্ক্রিনপ্রিন্ট, কারচুপির মিশেল। বাহারি পোশাকের আয়োজন আরো উৎসবমুখর করে দিচ্ছে ফাগুনের আয়োজনটিকে। পোশাকগুলোতে মিশে গেছে ফাগুনের আবেশ।

দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো প্রতি বছরই বসন্তের রঙিন পোশাকের পসরা সাজায়। এ বছরও নানা রং, ডিজাইন আর মোটিফ নিয়ে বৈচিত্র্যময় পোশাকের আয়োজন করেছে হাউসগুলো। বিশ্ব রঙ, ইনফিনিটি, আড়ং, অঞ্জন’স, রঙ, বিবিয়ানা, কে-ক্রাফট, টাস্ট মার্ট, বাংলার মেলা, দেশাল ও নিপুণে পেয়ে যাবেন পছন্দের ফাল্গুনের পোশাক। এ ছাড়া বসুন্ধরা শপিং মল, যমুনা ফিউচার পার্ক, কর্ণফুলী গার্ডেন সিটি, মৌচাক মার্কেট, ফরচুন শপিং মল এবং নিউমার্কেট ও গাউসিয়া থেকে বেছে নিতে পারেন বাসন্তী পোশাক।

আসুন চোখ রাখি বিভিন্ন বুটিক হাউজের ফাগুন আর ভালোবাসার যৌথ আয়োজনে।

রঙ: দেশের শীর্ষ ফ্যাশন হাউজ ‘রঙ বাংলাদেশ’ পয়লা ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে নিয়ে এসেছে পোশাকের বিশেষ কালেকশন। বাসন্তি, গোল্ডেন, সবুজ ও নীল রং এ উজ্জ্বল হয়েছে ফাগুনের প্রতিটি পোশাক। মূলত ট্র্র্যাডিশানাল পোশাকই রয়েছে এই কালেকশনে। মেয়েদের কালেকশনে আছে শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, সিঙ্গেল কামিজ, টপস, আনষ্টিচ, সিঙ্গেল ওড়না, ব্লাউজ। জমিন অলঙ্করণে ব্যবহৃত হয়েছে ব্লক প্রিন্ট, স্ক্রিন প্রিন্ট, হাতের কাজ, প্যাচওয়ার্ক। কেবল মেয়েদের নয়, ছেলেদের কালেকশনও সমান আকর্ষণীয়। পাঞ্জাবি, পায়জামা, ফুলহাতা ও হাফহাতা শার্ট, টি-শার্ট, পোলো-শার্ট।বড়দের পাশাপাশি শিশুদের জন্য রয়েছে ফাগুনের পোশাক। এই কালেকশনে রয়েছে ফ্রক, লং-স্কার্ট-টপস, পাঞ্জাবি, ধুতি, ফুলহাতা ও হাফহাতা শার্ট, টি-শার্ট, পোলো-শার্ট।

ফাগুন উদযাপনে মেয়েদের পোশাকের ক্ষেত্রে রঙ বাংলাদেশের শাড়ি কেনা যাবে ১,৪৫০-৫,৫০০ টাকার মধ্যে, থ্রিপিস ২,০০০-৩,০০০ টাকা, সিঙ্গেল কামিজ ১,৫০০-২,০০০ টাকা, আনষ্টিচ ২,০০০-২,৫০০ টাকা, সিঙ্গেল ওড়না ৫৫০-৬০০ টাকা, ব্লাউজ ৩৮০-৭৫০ টাকার মধ্যে।ছেলেদের পাঞ্জাবি ১,০০০-১,২০০ টাকা, টি-শার্ট ৩৫০-৬৫০ টাকা, শার্ট ৭১০-৯৫০ টাকা। বাচ্চাদের শার্ট ৫০০-৬৫০ টাকা, টি-শার্ট ৩৫০-৬৫০ টাকা, পাঞ্জাবি ৬০০-৭৫০ টাকা, ফ্রক ৭০০-৮৫০ টাকা, সিঙ্গেল কামিজ ৭৮০-৮৫০ টাকা।

অঞ্জন’স: ফাগুন আর ভালোবাসা দিবসকে উপলক্ষ করে নতুন ডিজাইনের পোশাক এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। কামিজগুলোর প্যাটার্নেও এসেছে নতুনত্ব। স্লিমফিট ও একছাট কাটিং-এ পাঞ্জাবি করা হয়েছে। এই আয়োজনের সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য পেয়েছে শাড়ি। বাসন্তী, গোলাপি, লাল, সাদা, কমলা, হলুদ, সবুজ রং-এর পোশাকগুলোর জন্য বেছে নেয়া হয়ছে আরামদায়ক সুতি কাপড়। পোশাকে কাজ করা হয়েছে এমব্রয়ডারি, অ্যাপ্লিক, ব্লক, হাতের কাজ, স্প্রে, হ্যান্ড পেইন্ট, টাইডাই প্রভৃতি। তরুণ তরুণীদের প্রাধান্য দেয়া হলেও সব বয়সীদের জন্যই পোশাকের আয়োজন রয়েছে এখানে। কাপড় আর ডিজাইনভেদে দাম নির্ধারণ হয়েছে পোশাকের। ছোটদের পোশাক দু’হাজার থেকে শুরু। পাঞ্জাবির দাম শুরু আড়াই হাজার থেকে। আর শাড়ি সাড়ে তিন হাজার থেকে বিভিন্ন দামে।

নিপুণ: ফাগুন এবং ভালোবাসা দিবসের পোশাক সম্ভার নিয়ে হাজির হয়েছে ফ্যাশন হাউজ নিপুণ। শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, পাঞ্জাবি, ফতুয়া, ফ্রক এবং শিশুদের পোশাক রয়েছে এ আয়োজনে। পোশাকগুলোতে রং হিসেবে প্রাধান্য পেয়েছে বসন্তের রং হলুদ, সবুজ, কমলা, সরিষা হলুদ, অফ হোয়াইট এবং লাল। শাড়ি, সালোয়ার কামিজ এবং শিশুদের পোশাকে এসেছে নানা ফ্লোরাল মোটিভ। সুতি, হাফ সিল্ক, লিলেন এবং তাঁতের কাপড়ের এসব পোশাকে করা হয়েছে ব্লক, অ্যাম্ব্রয়ডারি, অ্যাপ্লিক, হাতের কাজ এবং স্ক্রিন প্রিন্ট।

দেশাল: ভিন্ন ঘরানার ডিজাইনের জন্য দেশালের পোশাকের প্রাধান্য রয়েছে তরুণদের কাছে। থ্রি-পিস, শাড়ি, ঢোল সালোয়ার, ওড়না, ছোটদের পোশাকের বিশাল সমাহার এখানে। শাড়ির দাম রাখা হয়ে আড়াই হাজার থেকে দেড়হাজার টাকার মধ্যে। থ্রি-পিস তিন হাজার থেকে ১২শ টাকা, ছোটদের পোশাক একহাজার থেকে ৭শ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে এখানে আপনার নাম লিখুন