Natun Kagoj

ঢাকা, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ | ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ | ২৪ রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯

চট্রগ্রাম থেকে ৭৫ হাজার সিমকার্ডসহ ৮ জন আটক

আপডেট: ২৫ জুলা ২০১৬ | ০৭:২০

৭৫ হাজার সিমকার্ডসহ ৮ জন

চট্রগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের রিয়াজউদ্দিন বাজারে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বায়োমেট্রিক নিবন্ধিত অন্তত ৭৫ হাজার সিমকার্ডসহ ৮ জনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রোববার বিকেলে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযানে চালিয়ে বিভিন্ন মোবাইল ফোন অপারেটরের এসব সিম উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া সিম ও আটক ব্যক্তিদের গোয়েন্দা কার্যালয়ে আনা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চারটি দোকানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সিমসহ সাতজনকে আটক করা হয়েছে। দেবদাস ভট্টাচার্য আরো জানান, অভিযানের পর সিডিএ মার্কেটের এম টেলিকম, মোস্তাফা টেলিকমসহ চারটি দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। উদ্ধার করা সিমগুলো সচল ও নিবন্ধিত বলেও জানান তিনি।

এর আগে গত ৩০ জুন ময়মনসিংহে ২ হাজার ৫৩১টি সিম, একটি বায়োমেট্রিক নিবন্ধন যন্ত্র এবং অবৈধ ভিওআইপি (ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল) সরঞ্জামসহ তিন জনকে আটক করে পুলিশ। তার ঠিক এক দিন আগেই রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে মোবাইল সিম জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত সন্দেহে কয়েকজনকে আটকের পর পুলিশ জানায়, জালিয়াতির মাধ্যমে অন্যের বায়োমেট্রিক তথ্য ব্যবহার করে হাজার হাজার নিবন্ধিত সিম চড়া দামে বিক্রি করা হচ্ছে।

এরও আগে গত মে মাসে প্রথম চট্টগ্রামে বায়োমেট্রিক সিমের মাধ্যমে জালিয়াতির খবর পায় পুলিশ। বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধনের পরও জালিয়াতি করে সিম উত্তোলন করে বিকাশ অ্যাকাউন্টে জমা হওয়া সাধারণ গ্রাহকদের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল চক্রটি। বিকাশ অ্যাকাউন্টধারী অন্তত ১২০টি বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধিত সিম জালিয়াতির মাধ্যমে উত্তোলন করেছিল চক্রটি। তারপর সেই সিম ব্যবহার করে প্রকৃত বিকাশ অ্যাকাউন্টধারীদের লক্ষ লক্ষ টাকা তারা হাতিয়ে নিয়েছিল।


নতুন কাগজ | রুদ্র মাহমুদ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

Loading Facebook Comments ...
 বিজ্ঞাপন