Natun Kagoj

ঢাকা, বুধবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী

উত্তরায় ভুল চিকিৎসার বলি শিশু ‘আরিভা’

আপডেট: ১২ ফেব্রু ২০১৭ | ১৫:২০

16710585_1851262878537310_1464190443_oসোহাগ আরেফিন: শিশু আরিভাকে সুস্থ্য করতে এসে লাশ নিয়ে যাচ্ছেন মা হাসিনা ও বাবা তাইমুল। তাদের গগনবিদারী চিৎকারে ভারাক্রান্ত উত্তরা মা ও শিশু হাসপাতালের করিডোর! তারা ফেরত চান জীবিত আরিভাকে।

ঘটনা আজকের সকালের। তখনো ভোর। কত আর সাতটা চল্লিশ বা পয়তাল্লিশ হবে। শিশু আরিফার জ্বর ১০১ ডিগ্রী। তাকে নিয়ে টঙ্গী থেকে ‘উত্তরা মা ও শিশু হাসপাতাল’-এ আসেন মা হাসিনা ও বাবা তাইমুল।

আরিভার স্বজনেরা জানান, হাসপাতালে আরিভাকে রিসিভ করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ ঐশী। তিনি শিশুটিকে দেখেন। নিয়ে যান এবং অক্সিজেন দেন, সেই সাথে ‘কটসন’ নামের একটি ইনজেকশন পুশ করেন। এর পরপরই আরিভার নাক-মুখ দিয়ে রক্ত বের হওয়া শুরু হয়। ততক্ষণে ডাক্তার ও নার্স গায়েব। একজন খুব সিরিয়াস বলে দ্রুত পাশের ‘লুভানা হাসপাতাল’-এ নিয়ে যান শিশু আরিভাকে। লুভানা হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক সেখানেই আরিভাকে মৃত ঘোষণা করেন।

দুই কন্যা সন্তানের বাবা-মা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। স্বজনেরা ভাংচুর চালান উত্তরা মা ও শিশু হাসপাতালে। কোন ডাক্তার বা নার্সকে আর খুঁজে পাওয়া যায় না তখন। গোটা হাসপাতাল জুড়ে কেবল বাবা-মায়ের আর্তনাৎ আর কান্না। আর উত্তরা মা ও শিশু হাসপাতালে দাঁড়িয়ে আছেন দুই রিসিপশনিস্ট।

খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলী হোসেন ও এডিসি সালাম। তারা জানান, প্রাথমিকভাবে এটিকে ভুল চিকিৎসা মনে করা হচ্ছে, তবে ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত চলছে। এজন্য নিহতের পরিবার ও স্বজনদের সহযোগিতা চান তারা।

তবে এ ঘটনায় এখনো কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলতে পারেনি পুলিশ। চেষ্টা চলছে বলে জানান তারা। এদিকে শিশু মৃত্যুর ঘটনায় এখনো থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।


নতুন কাগজ | সাজেদা হক

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

Loading Facebook Comments ...
 বিজ্ঞাপন