আইএসের বোমা হামলায় আফগান মন্ত্রণালয়ের সামনে নিহত ১৩

4

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : আত্মঘাতী বোমা হামলায় আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের প্রবেশপথে ১৩ জন নিহত ও কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার অফিস ছুটির পর অফিস থেকে বের হওয়া কর্মীরা হামলার শিকার হন বলে জানিয়েছে একজন সরকারি মুখপাত্র। খবর রয়টার্সের।

আগামী অক্টোবরে আফগানিস্তানে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে আগে কাবুলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় গত কয়েকমাসে বেশ কয়েকটি বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে এবং নিরাপত্তা পরিস্থিতির ব্যাপক অবনতি ঘটেছে। দেশটির সরকার বিনাশর্তে তালেবানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করার পর তাদের পক্ষ থেকে এধরনের প্রস্তাব এবারই প্রথম দেয়া হলো।

তবে তালেবানদের যুদ্ধবিরতি ঈদের চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করায় যুদ্ধবিরতি কখন থেকে কার্যকর হবে তা পরিষ্কার নয়। আফগানিস্তানের তালেবান জঙ্গিরা শনিবার আকস্মিকভাবে এই সপ্তাহের শেষে ঈদ উপলক্ষে তিন দিনের জন্য যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে।

আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিব দানিশ বলেছেন, বোমা হামলায় হতাহতদের মধ্যে নারী, শিশু ও মন্ত্রণালয়ের কর্মচারীরা রয়েছেন। তবে দেশটির জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, নিহতদের মধ্যে কোনও শিশু নেই। তথাকথিত ইসলামিক স্টেট (আইএস) তাদের আমাক নিউজ এজেন্সির মাধ্যমে এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। তবে তারাই হামলা চালিয়েছে এমন কোনও প্রমাণ তারা দেয়নি।

বোমা হামলায় আক্রান্ত মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ফ্রাইদুন আজান্দ বলেন, হামলাকারী মন্ত্রণালয়ের প্রবেশ পথে বিস্ফোরণ ঘটায়। রয়টার্সকে তিনি বলেন, হতাহতদের সবাই মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী নাকি এর মধ্যে সাধারণ মানুষও রয়েছে তা আমরা জানি না। মন্ত্রণালয়টির একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুল রয়েছে যেখানে কর্মচারীরা তাদের শিশুদের নিয়ে আসেন। এসব শিশুরাও হামলার শিকার হয়ে থাকতে পারে, কিন্তু এখনই তা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।

MHKhan(007)- 12/06 NK08